দেখবেন আপনার সন্তানও যেন হঠাৎ হারিয়ে না যায়

সন্তান হারানো যে কোনো বাবা-মায়ের জন্যই অপরিসীম বেদনার৷ অথচ সন্তান কখন যে হারিয়ে যায় অনেক বাবা-মা তা বুঝতেই পারেন না৷ বোঝেন যখন, তখন অনেক দেরি হয়ে গেছে, সব বন্ধন ছিঁড়ে সন্তান ততক্ষণে চলে গেছে জীবনের ওপারে৷

আপনি কী ভাবছেন?

এখানে ক্লিক করুন ও আলোচনায় যোগ দিন

গুলশানের রেস্তোরাঁয় হামলা চালানো জঙ্গিদের পরিচয় জেনে অনেকেই বিস্মিত৷ এত ধনাঢ্য, অভিজাত পরিবারের সন্তানরা কী করে জঙ্গি হয়, ইংরেজি মাধ্যমের স্কুল এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা ‘আধুনিক' তরুণরা কিভাবে ধর্মের নামে এত নৃশংসভাবে মানুষ হত্যা করে – তা তারা ভেবেই পাচ্ছেন না৷ অথচ আর্থিক স্বচ্ছলতা এবং ইংরেজিজ্ঞান কখনোই আধুনিকতা আর মানবিক শিক্ষার নিয়ামক নয়৷ ‘জঙ্গি মানেই মাদ্রাসাছাত্র' – এমন ধারনার অসারতার প্রমান তো আমরা অতীতেও অনেকবার পেয়েছি৷

সমাজ

অভিযোগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে

২০১৩ সালে ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হয় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি বা এনএসইউ-এর পাঁচ ছাত্র৷ তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়৷ এরা সকলেই ছিল আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের সদস্য৷

সমাজ

ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের মগজ ধোলাই

ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের ভুলিয়েভালিয়ে দলে নিচ্ছে জঙ্গিরা, এমন ইঙ্গিত দেখা যাচ্ছে৷ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিতরা তাই জঙ্গিবাদ প্রতিরোধের জন্য আগামীতে কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ছাত্র-শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়মিত বৈঠক করার কথাও ভাবছেন৷

সমাজ

আছে বুয়েটের শিক্ষার্থীরাও

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বা বুয়েট-এর ছাত্র মোহাম্মদ নুরউদ্দনি এবং আবু বারাকাত মোহাম্মদ রফকিুল হাসান হাসানকে বুয়েট থেকে বহিষ্কার করে পুলিশে দেয়া হয় ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে৷

সমাজ

হিযবুত তাহরীরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক

বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহরীরের প্রধান মহিউদ্দিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববদ্যিালয়ের আইবিএ-র শিক্ষক ছিলেন৷

সমাজ

মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরাও রয়েছে

কওমি মাদ্রাসাগুলোকে জঙ্গিবাদের কারখানা বলা হতে একসময়৷ সেই বাস্তবতা মুছে যায়নি৷ ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে আটক দু’জন নিজেদের মাদ্রাসার শিক্ষার্থী দাবি করেছেন৷

সমাজ

সতর্ক পুলিশ

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এবং জঙ্গি বিষয়ক বিশেষ সেলের সদস্য সানোয়ার হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমাদের পর্যবেক্ষণ বলছে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষার্থীদের একাংশ এখন জঙ্গি তৎপরতার দিকে ঝুঁকছে৷ আর যারা অপারেশনে অংশ নিচ্ছে, তারাও বয়সে তরুণ এবং ছাত্র৷''

ব্লগার রাজীব হত্যা মামলার আটজন আসামির সাতজনই যে নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র – তা কি আমরা ভুলে গেছি?

আগের হত্যাকাণ্ডগুলোর আসামীদের সঙ্গে গুলশানের রেস্তোরাঁয় হামলাকারীদের বড় একটা পার্থক্য হলো, এই হামলাকারীদের পরিচয় এবং অপরাধ সম্পর্কে কোনো বিভ্রান্তি বা সংশয়ের অবকাশ নেই

Deutsche Welle DW Ashish Chakraborty

আশীষ চক্রবর্ত্তী, ডয়চে ভেলে

এই জঙ্গিরা ‘আত্মস্বীকৃত' জঙ্গি৷ ঘটনাপরম্পরায় এইটুকু অন্তত বলা যেতেই পারে৷

কিন্তু এই তরুণরা কেমন করে হঠাৎ জঙ্গি হয়ে গেল অনেকের কাছে সেটাই যেন বিস্ময়ের৷ তাদের পরিবারও নাকি বিষয়টা বুঝতে পারেনি৷ এক জঙ্গির পরিবারের পক্ষ থেকে সন্তানের নিখোঁজ হওয়ার খবর পুলিশকেও নাকি জানানো হয়েছিল৷ কিন্তু সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, পুলিশ তখন বিষয়টিকে আমলে নেয়নি৷ তাদের মনে হয়েছে, বড় লোকের ছেলেটি হয়ত কোথাও বেড়াতে গেছে, সময়মতো ঠিকই ফিরে আসবে৷

কিন্তু ছেলেটি আর ফেরেনি৷ নিরীহ কিছু মানুষকে মেরে নিজেও মৃত্যুবরণ করেছে৷

প্রশ্ন জাগে, বাবা-মায়ের দায়িত্ব কি শুধু সন্তানের ভরনপোষণ আর লেখাপড়ার খরচ জোগানো? সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কী করছে – এ সব সম্পর্কে উদাসীনতা যে কত বড় বিপদ ডেকে আনতে পারে তার ভুরি ভুরি দৃষ্টান্ত তো বহুবার আমরা দেখেছি৷ এমন উদাসীনতার কারণেই নেশার রাজ্যে ডুবে নিজের বাবা-মাকেই হত্যা করেছে ঐশী৷ ওর সামনে এখন ফাঁসির দড়ি৷ আদালত শাস্তি মওকুফ না করলে হয়ত কৈশোরেই শেষ হয়ে যাবে একটি জীবন৷

ঐশীর বাবা-মাকে তবু সন্তানের মৃত্যু দেখে যেতে হয়নি৷ জঙ্গিদের মা-বাবাকে তা দেখতে হলো৷ দেখতে হলো প্রায় তাদের সন্তানেরই বয়সের ছেলে ফারাজের মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত৷ দুই বন্ধুর জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করেছে ফারাজ৷ সারা বিশ্বের গণমাধ্যম তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ৷

অন্যদিকে জঙ্গিরা৷ তাদের পরিচয়, তাদের কৃতকর্ম পরিবারকেও শুধু দুঃখ আর গ্লানিই দিয়েছে৷

এই গ্লানিতে রাষ্ট্র এবং সমাজেরও দায় নিশ্চয়ই আছে৷ কিন্তু পরিবারও দায় এড়াতে পারে না৷ কোনো কিছুই হঠাৎ ঘটে না৷ গুলশানের জাতীয় ট্র্যাজেডি সব পরিবারের জন্যই এক সতর্কবার্তা৷ পরিবারের সবাই, বিশেষ করে বাবা-মা সব সময় উঠতি বয়সের সন্তানদের পাশে থাকুন৷ ওদের ভরসা হয়ে থাকুন, ছায়া হয়ে থাকুন যেন কোনো খরতাপেই কচি কচি জীবনগুলো হঠাৎ জ্বলেপুড়ে শেষ হয়ে না যায়!

লেখকের সঙ্গে আপনি কি একমত? জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

ঘটনার শুরু

প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণ অনুযায়ী, শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে একদল অস্ত্রধারী গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালালে অবস্থানরত অজ্ঞাত সংখ্যক অতিথি সেখানে আটকা পড়েন৷

দুই পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে নিহত হন বনানী থানার ওসি সালাউদ্দিন ও গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার রবিউল ইসলাম৷

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য

কমান্ডো অভিযান চালিয়ে ১৩ জিম্মিকে জীবিত উদ্ধারের পাশাপাশি ছ'জন হামলাকারীকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ বলেছেন, বাকি কয়েকজনকে হয়তো বাঁচানো যায়নি৷ এই জঙ্গি হামলায় জড়িত একজন ধরা পড়েছে বলেও শনিবার সকালে এক অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন তিনি৷

এ যেন দুঃস্বপ্ন

কমান্ডো অভিযানে মুক্ত গুলশানের ক্যাফে থেকে উদ্ধার পাওয়া ব্যক্তিদের ১২ ঘণ্টার ‘দুঃস্বপ্ন’ কাটছে না৷ তাঁদের চোখে মুখে ক্লান্তি ও ভীতির ছাপ৷ তারা বলছিলেন, কয়েকজনের মৃতদেহ দেখেছেন, অনেক জায়গায় রক্তের ছাপ৷

প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য

তাঁরা বলছেন, জিম্মিকারীরা বাংলাদেশি মুসলমানদের সুরা পড়তে বলে৷ সুরা পড়তে পারার পর তাঁদেরকে রাতে খেতেও দেওয়া হয়৷ যাঁরা হিজাব পরা ছিল, তাঁদের বাড়তি খাতির করা হয়৷

আইএস-এর দায় স্বীকার

তথাকথিত ইসলামিক স্টেট বা আইএস এই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে বলে সাইট ইন্টিলিজেন্স গ্রুপ জানিয়েছে৷ এই জঙ্গি দলের মুখপত্র আমাক নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে এ সব খবরে দাবি করা হয় যে, ‘তাদের’ এই হামলায় ২৪ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ৪০ জন৷

কমান্ডো অভিযান

সকাল ৭ টা ৩০ মিনিটে রাতভর গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্টুরেন্ট সংলগ্ন এলাকা ঘিরে রাখার পর যৌথ সেনা, নৌ, পুলিশ, র‍্যাব এবং বিজিবির সমন্বয়ে যৌথ কমান্ডো দল গুলশানে অভিযানের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেয়৷ ৮ টা ১৫ মিনিটে প্রথম দফায় নারী ও শিশুসহ ৬ জনকে উদ্ধার করা হয়৷

ভবনের নিয়ন্ত্রণ ও আতঙ্কের অবসান

৮ টা ৫৫ মিনিটে ভবনের নিয়ন্ত্রণ নেয় অভিযানকারীরা৷ গোয়েন্দা দল ভবনের ভেতর বিস্ফোরকের জন্য তল্লাশি শুরু করে৷ ৯ টা ১৫ মিনিটে ১২ ঘণ্টার রক্তাক্ত জিম্মি সংকটের অবসান হয়৷

গুলশানের রেস্তোরাঁয় হামলা চালানো জঙ্গিদের পরিচয় জেনে অনেকেই বিস্মিত৷ এত ধনাঢ্য, অভিজাত পরিবারের সন্তানরা কী করে জঙ্গি হয়, ইংরেজি মাধ্যমের স্কুল এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা ‘আধুনিক' তরুণরা কিভাবে ধর্মের নামে এত নৃশংসভাবে মানুষ হত্যা করে – তা তারা ভেবেই পাচ্ছেন না৷ অথচ আর্থিক স্বচ্ছলতা এবং ইংরেজিজ্ঞান কখনোই আধুনিকতা আর মানবিক শিক্ষার নিয়ামক নয়৷ ‘জঙ্গি মানেই মাদ্রাসাছাত্র' – এমন ধারনার অসারতার প্রমান তো আমরা অতীতেও অনেকবার পেয়েছি৷

সমাজ

অভিযোগ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে

২০১৩ সালে ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হয় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি বা এনএসইউ-এর পাঁচ ছাত্র৷ তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়৷ এরা সকলেই ছিল আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের সদস্য৷

সমাজ

ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের মগজ ধোলাই

ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের ভুলিয়েভালিয়ে দলে নিচ্ছে জঙ্গিরা, এমন ইঙ্গিত দেখা যাচ্ছে৷ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিতরা তাই জঙ্গিবাদ প্রতিরোধের জন্য আগামীতে কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ছাত্র-শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়মিত বৈঠক করার কথাও ভাবছেন৷

সমাজ

আছে বুয়েটের শিক্ষার্থীরাও

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বা বুয়েট-এর ছাত্র মোহাম্মদ নুরউদ্দনি এবং আবু বারাকাত মোহাম্মদ রফকিুল হাসান হাসানকে বুয়েট থেকে বহিষ্কার করে পুলিশে দেয়া হয় ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে৷

সমাজ

হিযবুত তাহরীরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক

বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহরীরের প্রধান মহিউদ্দিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববদ্যিালয়ের আইবিএ-র শিক্ষক ছিলেন৷

সমাজ

মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরাও রয়েছে

কওমি মাদ্রাসাগুলোকে জঙ্গিবাদের কারখানা বলা হতে একসময়৷ সেই বাস্তবতা মুছে যায়নি৷ ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে আটক দু’জন নিজেদের মাদ্রাসার শিক্ষার্থী দাবি করেছেন৷

সমাজ

সতর্ক পুলিশ

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এবং জঙ্গি বিষয়ক বিশেষ সেলের সদস্য সানোয়ার হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমাদের পর্যবেক্ষণ বলছে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষার্থীদের একাংশ এখন জঙ্গি তৎপরতার দিকে ঝুঁকছে৷ আর যারা অপারেশনে অংশ নিচ্ছে, তারাও বয়সে তরুণ এবং ছাত্র৷''