বিজ্ঞান পরিবেশ

পুরুষের জন্য তৈরি হতে পারে জন্মনিয়ন্ত্রণ বটিকা

শুধুমাত্র নারীরাই কেন ‘পিল' খেয়ে জন্মনিরোধের ব্যবস্থা পাকা করবে? পুরুষদের জন্যও এবার আসতে চলেছে জন্মনিরোধ বটিকা৷ বা পিল৷ জানা গেছে, শুক্রাণুকে দুর্বল করার রাস্তা৷

default

জন্মনিরোধ এবং জন্মনিরোধ

বিশ্বের এক এক প্রান্তে এক এক রকমের ছবি৷ ইউরোপের অধিকাংশ দেশে, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড কিংবা ক্যানাডা বা অস্ট্রেলিয়ায় মানুষের জন্মহার বেশ কম৷ তারা চায় আরও শিশু জন্মাক৷ আর অন্যদিকে, চীন, ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান কিংবা মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া সহ ঘনবসতিপূর্ণ দেশগুলোতে মানুষের সংখ্যা উল্কার মত বেড়ে চলেছে৷ এমনিতেই বিশ্বের জনসংখ্যা জন বিস্ফোরণের কাছকাছি পৌঁছবে আগামী ২৫ বছরের মধ্যে, বলছে সমীক্ষা৷ সুতরাং, সেদিকে তাকালে তো অবশ্যই ভাবতে হবে, কী ভাবে জনসংখ্যার এই তীব্র গতিতে বাড়বৃদ্ধিকে ঠেকানো যায়৷ আর সেই জন্যই ক্রমাগত চলছে নানা ধরণের নিরীক্ষা৷ জন্ম নিয়ন্ত্রণের প্রাথমিক উপায় হিসেবে কনডমের ব্যবহার তো গোটা বিশ্বেই প্রচলিত৷ তার সাহায্যে শুধু যে জন্মহার কমানো যায়, তাই-ই নয়, সেইসঙ্গে এইডস বা এইচআইভি-র মত মারণ রোগের বাড় বিস্তারকেও ঠেকানো সম্ভব হয়৷ সুতরাং, কনডম অত্যন্ত কার্যকরী এক আবিষ্কার৷ জন্মহার নিয়ন্ত্রণের আর যা প্রচলিত উপায়, তা হল মহিলাদের জন্য জন্ম নিয়ন্ত্রণের বড়ি৷ যার সাহায্যে নারী নিয়মিত জীবনযাপনের পরেও গর্ভবতী হয়না এবং তার সাহায্যে জন্মহার নিয়ন্ত্রিত হয়৷ তারপরেও পুরুষের জন্যও এমনই কোন উপায়ের সন্ধানে ছিল বিজ্ঞান৷ সন্ধান চলছিল এমন এক পথের, যাতে নারীর মতই পুরুষও কোন বিশেষ বড়ি খেলে তার শুক্রাণুর তেজকে নিয়ন্ত্রিত করা যাবে৷ ফলে জন্মহার বাড়তে পারবে না৷

Gegen Abtreibung Mexico Stadt

জিনের নাম ‘কাটনা ওয়ান'

‘কাটনা ওয়ান'৷ অবশেষে জানা গেছে পুরুষের জন্যও সেই বিশেষ বড়ি প্রস্তুতের সম্ভাবনা৷ এডিনবড়ার গবেষকরা সেই পথ খুঁজে পেয়ে গেছেন৷ প্রাথমিকভাবে ইঁদুরদের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে বোঝা গেছে, পুরুষের শরীরে শুক্রাণুকে ক্ষমতাশালী করে যে জিন, তার নাম ‘কাটনা ওয়ান'৷ বিশেষ এই জিনের ক্ষমতা যদি কিছুটা কমিয়ে দেওয়া যায়, তাকে যদি দুর্বল করে ফেলা যায়, তাহলেই আর নারীর গর্ভে ভ্রুণ তৈরি করতে পারবে না পুরুষের শুক্রাণু৷ তার ফলে অনেক সহজ হয়ে যাবে জন্ম নিয়ন্ত্রণের পদ্ধতি৷ কারণ, প্রচলিত যেসব পদ্ধতি সচরাচর ব্যবহৃত হয়ে থাকে, বহু দেশে দেখা যায় ধর্মীয় কারণে কিংবা নারী পুরুষের শারীরিক মিলনের আনন্দকে বাধাগ্রস্ত না করতে কনডমের ব্যবহার সব সময়ে অনেকে করে না৷ দ্বিতীয় যে উপায়টি য়েছে, তা হল পুরুষের নির্বীজকরণ বা ভ্যাসেক্টমি৷ এক সময়ে এই পদ্ধতি জনপ্রিয় হলেও তার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে বিস্তর৷ ক্ষেত্র বিশেষে ভ্যাসেক্টমি বা নির্বীজকরণের ফলে অনেক পুরুষের শারীরিক শক্তি ব্যাহত হয়েছে এমন ঘটনার উদাহরণও কম নয়৷ তাছাড়া, মানসিক দিক থেকে ভ্যাসেক্টমি করাতে রাজি হন না, এমন পুরুষের সংখ্যাও কম নয়৷

নতুন পদ্ধতি কী তাহলে পিল?

Ortho Evra transdermal contraceptive patches and package

পুরুষের জন্যও হবে এমন বড়ি

সেটাই বিজ্ঞানের নতুনতম চমৎকার বললে ভুল বলা হবেনা৷ যদিও আপাতত পরীক্ষা নিরীক্ষার স্তরে রয়েছে পুরো বিষয়টিই৷ তবু, একথা বললে ভুল হবে না যে বিজ্ঞান একটা সমাধানসূত্র পেয়ে গেছে৷ আসলে এখানে অন্য একটি বিষয়কেও মাথায় রাখতে হবে, আর তাহল, বিগত বহু বছর ধরে এই জন্ম নিয়ন্ত্রণের দায় নারীর ওপরেই চাপিয়ে রেখেছে এ যাবৎ প্রচলিত ব্যবস্থা৷ নারীর শরীরে হরমোনের তারতম্য ঘটিয়ে তার সাহায্যে জন্ম নিয়ন্ত্রণের এই একই পদ্ধতি পুরুষের ক্ষেত্রেও ব্যবহার করা গেলে তাতে দ্বিবিধ উপকার৷ বলছে বিজ্ঞান৷ কারণ, পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ক্ষেত্রে ব্যক্তি বিশেষে নারীর ওপর যে ধরণের প্রভাব তৈরি করে থাকে জন্ম নিয়ন্ত্রণের বড়ি, পুরুষের ক্ষেত্রে তার প্রভাব ততটা বেশি নাও হতে পারে বলে জানাচ্ছেন এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদলটি৷

তবে এরপরেও সবকিছুই অনুমান সাপেক্ষ৷ কারণ পুরুষের শুক্রাণুকে নিস্তেজ করার এই যে নতুন আবিষ্কার, তাকে তৈরি করতে, যাবতীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা সহ সম্পূর্ণ করতে সময় লাগবে অনেকটাই৷ তারপরেও প্রয়োজনীয়তাই হল আসল কথা৷ আর বিশ্বের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে এমন একটি ম্যাজিক বড়ির জন্য অনেকদিনের অপেক্ষা তো আগে থেকেই ছিল৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায় (এপি, এএফপি)

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

Albanian Shqip

Amharic አማርኛ

Arabic العربية

Bengali বাংলা

Bosnian B/H/S

Bulgarian Български

Chinese (Simplified) 简

Chinese (Traditional) 繁

Croatian Hrvatski

Dari دری

English English

French Français

German Deutsch

Greek Ελληνικά

Hausa Hausa

Hindi हिन्दी

Indonesian Bahasa Indonesia

Kiswahili Kiswahili

Macedonian Македонски

Pashto پښتو

Persian فارسی

Polish Polski

Portuguese Português para África

Portuguese Português do Brasil

Romanian Română

Russian Русский

Serbian Српски/Srpski

Spanish Español

Turkish Türkçe

Ukrainian Українська

Urdu اردو