জার্মানি ইউরোপ

প্রাথমিক স্কুলগুলিতে পুরুষ শিক্ষকের অনটন

জার্মানির প্রাথমিক স্কুলগুলিতে পুরুষ শিক্ষকের প্রচণ্ড অভাব লক্ষ্য করা যায় আজকাল৷ মাত্র ১২ শতাংশ শিক্ষক সেখানে পুরুষ৷ তাই এই অবস্থার পরিবর্তন করতে উদ্যোগ নিচ্ছে ব্রেমেন শহরের একটি কর্মসূচি৷ যার নাম – ‘রেন্ট এ টিচারম্যান’৷

Children play with their nursery school teacher at their Kindergarten in Hanau, 30km (18 miles) south of Frankfurt, March 12, 2013. Despite a drive in German Chancellor Angela Merkel's first term to boost the number of childcare spots, Germany's birthrate remains one of the lowest in Europe. REUTERS/Kai Pfaffenbach (GERMANY - Tags: POLITICS EDUCATION SOCIETY)

ব্রেমেন শহরের প্রাথমিক স্কুলের একটি চিত্র: স্পোর্টস ক্লাসে প্রথম শ্রেণির বাচ্চারা হুটোপুটি করছে৷ তাদের সাথে যোগ দিয়েছেন এক তরুণও৷ লম্বা সোনালি চুল তাঁর৷ নাম এরিক শ্যাফার৷ এই প্রাইমারি স্কুলটিতে সপ্তাহে একদিন স্বেচ্ছায় পড়াতে যান তিনি৷ ‘রেন্ট এ টিচারম্যান' বা ‘পুরুষ শিক্ষক ভাড়া করো' এই কর্মসূচির আওতায় কাজটি করছেন তিনি৷ ব্রেমেন ইউনিভার্সিটিতে প্রাথমিক স্কুলের জন্য শিক্ষক প্রশিক্ষণ বিষয়ে পড়াশোনা করছেন৷ পাশাপাশি ‘রেন্ট এ টিচারম্যান' প্রকল্পে বিশেষ অভিজ্ঞতাও অর্জন করছেন৷ স্পোর্টস ক্লাসে এলেই বুঝতে পারেন যে, সঠিক বিষয় নিয়েই পড়াশোনা করছেন তিনি৷ বাচ্চারা ‘শুভ সকাল মিস্টার শ্যাফার' বলে সম্ভাষণ করলে প্রসন্নও হয়ে ওঠে মনটা৷

পুরুষ শিক্ষকের সংখ্যা খুব কম

জার্মানির প্রাথমিক স্কুলগুলিতে ১০ জনের একজনও পুরুষ নয়৷ বলেন, ব্রেমেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাবিজ্ঞানী ক্রিস্টফ ফান্টিনি৷ ‘‘৩০ বছর আগেও এই হারটা ছিল ৫০ শতাংশের মতো৷ আর এখন, ব্রেমেনের ৭৪টি প্রাথমিক স্কুলের ১৭টিতে একজনও পুরুষ শিক্ষক নেই৷''

Children in the the reconstructed Thethi school My reportage is about the implementation of German funds by GIZ and German Embassy in Tirana to help the cummunities in the remote areas close to the Albanian Alps to deal with tourism and transform their hundred years old houses build up by stone to guest houses for turists and lovers of nature and hiking. Copyright: DW/Ani Ruci

‘রেন্ট এ টিচারম্যান' কর্মসূচির মাধ্যমে পুরুষদেরও এক্ষেত্রে এগিয়ে আসতে অনুপ্রাণিত করতে চান ফান্টিনি৷ ২০১১ সাল থেকে চলছে এই কর্মসূচিটি৷ এখন পর্যন্ত ২০ জন পুরুষ শিক্ষক এই কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন৷

ব্রেমেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ক্রিস্টফ ফান্টিনির ছাত্র ক্রিস্টিয়ান বুন্টে বিরক্ত হয়ে বলেন, ‘‘বাচ্চাদের লেখাপড়ায় আগ্রহ জাগাতে হলে শিক্ষার কলা-কৌশলটাও মাথায় থাকতে হবে৷ কিন্তু অনেকে মনে করেন, প্রাইমারি স্কুলে বুঝি শুধু গান গাওয়া ও হাতের কাজ শেখানো হয়৷ আর এই ধরনের কাজকে তেমন পুরুষালি বলে মনে করা হয় না৷''

পুরুষ সহকর্মী পাওয়া কঠিন

প্রাথমিক স্কুলটির প্রধান শিক্ষিকা আনেট ম্যোলার তাঁর স্কুলে পুরুষ সহকর্মী পাওয়ার চেষ্টা করে আসছেন৷ তবে সফল হননি৷ তাই এরিক শ্যাফারকে সপ্তাহে অন্তত একবার স্কুলটিতে আনতে পেরে তিনি খুশি৷ ম্যোলার বলেন, ‘‘এখানে পুরুষের দৃষ্টিকোণ থেকে অনেক কিছু দেখা হয় না৷ যেমন পুরুষ শিক্ষকরা এটা মেনে নেন যে, ছেলেরা মারামারি করবে৷ কিন্তু নারী শিক্ষকরা সাথে সাথে হস্তক্ষেপ করেন৷''

WIESBADEN, GERMANY - NOVEMBER 09: Director of German Football Association (DFB) Steffi Jones plays with pupils during the visit of Elly-Heuss School on November 9, 2011 in Wiesbaden, Germany. (Photo by Thorsten Wagner/Bongarts/Getty Images)

এরিক শ্যাফারও স্পোর্টস ক্লাসে বাচ্চা ছেলেদের মধ্যে মারামারিটা প্রথমে নজরে রাখেন৷ কেবল কান্নাকাটি শুরু হওয়ার পরই মিটমাট করার চেষ্টা করেন৷

অসুস্থ, বৃদ্ধ ও বাচ্চাদের দেখাশোনায় সাধারণত পুরুষদের দেখা যায় না জার্মানিতে৷ বিভিন্ন পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, এই ধরনের পেশা থেকে ক্রমেই সরে আসছেন ছেলেরা৷ এর ফলাফল হয় মারাত্মক৷ কেননা জার্মানিতে প্রবীণদের সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে৷ নার্সিং পেশায় কর্মীর প্রয়োজনও বাড়ছে জরুরি ভিত্তিতে৷ বলেন হিল্ডেসহাইম শহরের শিক্ষাবিজ্ঞানী মাইকে সোফিয়া বাডের৷ তাঁর মতে, ‘‘পুরুষরা এই পেশা থেকে সরে এলে বাচ্চারাও কোনো বৈচিত্র্য দেখতে পায় না, পায় না রোল মডেল৷ অন্যের পরিচর্যা করা বা চিন্তা-ভাবনা করাটা মেয়েদের বিষয়৷ এমনটি মনে করে তারা৷''

স্ক্যান্ডিনেভিয়ায় চিত্রটা ভিন্ন

ইউরোপের অন্যান্য দেশের প্রাথমিক স্কুলগুলিতেও দেখা যায় প্রায় একই রকমের চিত্র৷ যেমন পোল্যান্ডে৷ তবে স্ক্যান্ডিনেভিয়ার দেশগুলিতে অবস্থা খানিকটা ভিন্ন৷ সেখানে প্রাইমারি স্কুলগুলিতে নারী ও পুরুষ শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় সমান সমান৷ বিষয়টি কিন্তু বেতনের ওপর নির্ভর করে না৷ আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে তুলনামূলকভাবে জার্মান শিক্ষকরা বেশ ভালো বেতন পান৷ ‘‘আসল কথা শিক্ষকের পেশার একটা ভালো ‘ইমেজ' রয়েছে স্ক্যান্ডিনেভিয়ার সমাজে'', বলেন এই শিক্ষাবিদ৷

এক্ষেত্রে ফান্টিনি একটা পরিবর্তন আনতে চান৷ তিনি প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষকের পেশা বেছে নিতে পুরুষদের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে চান না৷ চান তাঁরা যেন স্বেচ্ছায় এই পেশা বেছে নেন৷ সমাজে স্বীকৃত হলে তাঁরা এ ব্যাপারে আকৃষ্টও হবেন৷ তাঁর ‘রেন্ট এ টিচারম্যান' প্রকল্পটি এক্ষেত্রে কিছুটা হলেও অবদান রাখতে পারে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

Albanian Shqip

Amharic አማርኛ

Arabic العربية

Bengali বাংলা

Bosnian B/H/S

Bulgarian Български

Chinese (Simplified) 简

Chinese (Traditional) 繁

Croatian Hrvatski

Dari دری

English English

French Français

German Deutsch

Greek Ελληνικά

Hausa Hausa

Hindi हिन्दी

Indonesian Bahasa Indonesia

Kiswahili Kiswahili

Macedonian Македонски

Pashto پښتو

Persian فارسی

Polish Polski

Portuguese Português para África

Portuguese Português do Brasil

Romanian Română

Russian Русский

Serbian Српски/Srpski

Spanish Español

Turkish Türkçe

Ukrainian Українська

Urdu اردو