ভবিষ্যদ্বাণী সফল করতে চাই অনেক জ্ঞান

ভবিষ্যদ্বাণী ফলে গেলে মনে বিস্ময় জাগে৷ কিন্তু সব পূর্ববাণী শেষ পর্যন্ত সত্য প্রমাণিত হয় না, হলেও আংশিকভাবে তা বাস্তব হয়৷ জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহ পরিণতির পূর্বাভাষ পুরোপুরি বিশ্বাস করতে মন চায় না৷

ভবিষ্যৎ চোখে দেখা যায় না, যা ঘটেনি – তা তো অদৃশ্য থাকবেই৷ ১৮২১ সালে আলেক্সিস বুভার কিন্তু নিশ্চিত ছিলেন যে, ইউরেনাসের পাশে একটি গ্রহ অবশ্যই রয়েছে৷ কারণ সূর্য প্রদক্ষিণ করতে ইউরেনাসের কক্ষপথ কেপলারের নিয়মের সঙ্গে কিছুতেই মিলছিল না৷ ২৫ বছর পর নেপচুন গ্রহ আবিষ্কারের ফলে বুভার-এর ভবিষ্যদ্বাণী সত্য প্রমাণিত হলো৷

১৮৭০ সালে রাশিয়ার রসায়নবিদ দিমিত্রি মেন্ডেলিয়েভ পিরিয়ডিক টেবল সৃষ্টি করেন৷ অথচ তখনও কিন্তু সব মৌলিক রাসায়নিক উপাদান আবিষ্কৃত হয় নি৷ কোনো উপাদান সেই কাঠামোয় খাপ না খেলে তিনি সেই জায়গা খালি রেখে দিতেন৷ তিনি ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, যে একদিন এই খালি অংশ ভরে যাবে৷ এমন পূর্ববাণী অবশ্য তুলনামূলকভাবে সহজ, কারণ বিজ্ঞান নিয়মের ভিত্তিতে চলে৷

সমাজ-সংস্কৃতি

লাইটের বাল্ব বদলে ফেলুন

ঘরে খুব সুন্দর সুন্দর লাইট লাগিয়েছেন? সৌন্দর্য বাড়ানোর পাশাপাশি এসব লাইটের বাল্ব অনেক সময় খরচও বাড়ায়৷ বিদ্যুতের খরচ কমাতে চাইলে শিগগির এলইডি বাল্ব লাগিয়ে নিন৷ অন্য সব বাল্বের চেয়ে এলইডি বাল্ব শতকরা ৯০ ভাগ পর্যন্ত কম বিদ্যুৎ খরচ করে৷

সমাজ-সংস্কৃতি

সব কাপড় রোদে-হাওয়ায় শুকান

কাপড় শুকানোর জন্য ড্রায়ার ব্যবহার করেন? যখনই সম্ভব ধোঁয়া কাপড় ড্রায়ারে না দিয়ে বাইরে টানিয়ে দিন৷ একটু সময় লাগলেও এক সময় কাপড়গুলো ঠিকই শুকিয়ে যাবে৷ বিদ্যুৎচালিত যন্ত্রপাতি যত কম ব্যবহার করবেন, ততই উপকার৷ জানেন তো, বিশ্বের উষ্ণায়ন বৃদ্ধি পরিবেশের জন্য কতটা ক্ষতিকর? ড্রায়ার আপনার কাপড় শুকায় ঠিকই, পাশাপাশি উষ্ণতা বৃদ্ধিতেও ভূমিকা রাখে৷

সমাজ-সংস্কৃতি

রিসাইক্লিং

বিশ্বকে বাসযোগ্য রাখতে অনেক জিনিসই রিসাইক্লিং, অর্থাৎ পুনর্ব্যবহার করার চল শুরু হয়েছে সারা বিশ্বে৷ তবে রিসাইক্লিংয়ের চর্চা থেকে অনেক মানুষই এখনো দূরে৷ একজন একজন করে শুরু করলেও সংখ্যাটা বাড়বে৷ জলবায়ুর ক্ষতিকর পরিবর্তন রোধের জন্য সেটাও কাম্য৷

সমাজ-সংস্কৃতি

ঠান্ডা পানিতে কাপড় ধোয়া ভালো

আপনি কি গরম পানিতে কাপড় ধুয়ে অভ্যস্ত? তাহলে কিন্তু গ্রিন হা্উ গ্যাস নির্গমন বাড়িয়ে আপনি জলবায়ু পরিবর্তনেও ভূমিকা রাখছেন৷ ঠান্ডা পানিতে কাপড় ধোয়া মোটেই কঠিন কাজ নয়৷ সহজ এই কাজটি করেও পরিবেশের উপকার করতে পারেন৷

সমাজ-সংস্কৃতি

হাইব্রিড গাড়ি চালান

গাড়ির ধোঁয়া পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি করে৷ তাই গাড়ি যদি চালাতেই হয়, তাহলে হাইব্রিড ইলেকট্রিক গাড়ি কিনুন৷ তাতে ক্ষতি কিছুটা কম৷

সমাজ-সংস্কৃতি

গরু, খাশির মাংস কম খান

গরু, খাশি এবং অন্যান্য পশুর মাংস খাওয়া কমিয়ে বা পুরোপুরি বাদ দিয়ে নিরামিষভোজী হলেও পরিবেশের উপকার৷

সমাজ-সংস্কৃতি

স্বল্প দূরত্বে বিমানযাত্রা কমান

বিমান চলাচলেও পরিবেশের অনেক ক্ষতি৷ ফলে আপনি যদি দেশের ভেতরে এক শহর থেকে অন্য শহরে যাওয়ার সময় অন্তত বিমানে না ওঠেন, তা পরিবেশ রক্ষায় কিছুটা ভূমিকা অবশ্যই রাখবে৷

সমাজ-সংস্কৃতি

গাড়ি ছেড়ে বাইসাইকেল

যে কোনো ধরনের গাড়ি বর্জন করে যদি বাইসাইকেলে যাতায়াত করেন তাতে শরীর এবং পরিবেশ দুয়েরই উপকার৷

সমাজ-সংস্কৃতি

বেশি সন্তান নয়

জনসংখ্যা বাড়লে পরিবেশের ওপর চাপও বাড়ে৷ ফলে বেশি সন্তান না নেয়াই ভালো৷

প্রোফেসর টোমাস বাউয়ার-এর কাজটা সহজ নয়৷ অর্থনীতিবিদ হিসেবে তিনি প্রবৃদ্ধি ও জনসংখ্যা সংক্রান্ত পূর্ববাণী করেন৷ কিন্তু তাঁর হিসেবের ভিত্তি অনিশ্চয়তায় ভরা৷ তিনি বলেন, ‘‘অদূর ভবিষ্যৎ সম্পর্কে পূর্ববাণী করতে হলে আমার হাতে  তার জন্য প্রয়োজনীয় যথেষ্ট তথ্য থাকে৷ কিন্তু আরও পরের কোনো সময়ের জন্য সেই কাজ করতে হলে তথ্যের অভাবে আমার ভুল করার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে৷ তাছাড়া এমন পূর্ববাণীর কথা জানলে মানুষের আচরণ বদলে যায়৷ ফলে সেই কারণেও তা বৈধতা হারায়৷''

পূর্ববাণী ভুল প্রমাণিত হবার এটা একটা কারণ৷ যেমন ১৯৭২ সালে ‘ক্লাব অফ রোম' ভবিষ্যদ্বাণী করেছিল যে, ২০০০ সালে পৃথিবীর সব প্রাকৃতিক সম্পদ নিঃশ্বেসিত হয়ে যাবে৷ বছর শেষ হবার আগেই তেল, গ্যাস ও কয়লা আর অবশিষ্ট থাকবে না বলে ধরে নেওয়া হয়েছিল৷

ব্রেক্সিটের ক্ষেত্রেও এমনটা দেখা দিয়েছিল৷ ভোটগ্রহণ শেষ হওয়া পর্যন্ত জনমত সমীক্ষায় ইউরোপীয় ইউনিয়নে ব্রিটেন থেকে যাবে বলে পূর্ববাণী করা হয়েছিল৷ অর্থনৈতিক ও সামাজিক পূর্ববাণী তাই প্রায়ই খুঁতে ভরা থাকে৷ কারণ অনেকগুলি বিষয় অনিশ্চয়তায় ভরা থাকে৷

প্রো. টোমাস বাউয়ার বলেন, ‘‘কোনো পূর্ববাণী দ্রুত অবৈধ হয়ে যায়, যখন অপ্রত্যাশিত কোনো ঘটনা ঘটে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রিয়েল এস্টেট বাজারে ধস, কোনো প্রাকৃতিক বিপর্যয়, রপ্তানির বাজারে গুরুত্বপূর্ণ কোনো দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা – এই সব অপ্রত্যাশিত ঘটনা তখন পূর্ববাণীকে ভুল প্রমাণিত করে৷''

বিশেষজ্ঞরা অত্যন্ত বিরল ও অপ্রত্যাশিত ঘটনাকে প্রতীকী অর্থে ‘কালো হাস' বলে থাকেন৷ এমন ঘটনা সব পূর্ববাণী ভুল প্রমাণিত করে, গোটা বিশ্ব তোলপাড় হয়ে যায়৷ বিশেষ করে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে এমনটা দেখা যায়৷ তা সত্ত্বেও পূর্ববাণী ফলছে কিনা, তা দেখার জন্য আমরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করি৷ প্রো. বাউয়ার বলেন, ‘‘ভবিষ্যতে কিছুটা নিশ্চয়তার খাতিরে আমাদের পূর্ববাণীর প্রয়োজন রয়েছে৷ পরিকল্পনার জন্য কিছুটা নিরাপত্তার প্রয়োজন৷''

তবে ভয়ংকর পূর্বাভাষেও সবসময় কাজ হয় না৷ যেমন জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিশাল বালু ঝড় আমাদের শহরে বিপর্যয় আনে পারে – এমন সাবধানবাণী সত্ত্বেও আমরা আমাদের আচরণ তেমন বদলাই নি৷ এর অন্যতম কারণ হলো, আমাদের জীবদ্দশায় পৃথিবীতে এমন নাটকীয় পরিবর্তন ঘটতে পারে, এমনটা কল্পনা করার ক্ষমতা আমাদের নেই৷ আরেকটি কারণ হলো, অনেক পূর্বাভাষের মতো এটিও একশ ভাগ সত্য হবে না বলে আমাদের বিশ্বাস৷ তাছাড়া কাকতালীয়ভাবেও তো কত কী ঘটে!

পরিবেশ

বিমানযাত্রা কঠিন হবে

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিমানে ঝাঁকুনি বেড়ে যাবে, ফলে বিমানযাত্রায় শারীরিক ও মানসিক চাপ আরো বাড়বে৷ বিশেষ করে যাত্রীবাহী বিমানগুলো যে পথে চলাচল করে, সেই পথ আগের চেয়ে আরো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়বে বলে এক গবেষণায় জানা গেছে৷

পরিবেশ

জাহাজের পথে আইসবার্গ

সমুদ্রে জাহাজ চলাচলের পথে বাধা সৃষ্টি করবে ভাসমান আইসবার্গ৷ গত এপ্রিলে চারশ’ আইসবার্গ নর্থ আটলান্টিকে জাহাজ চলাচলের জলসীমায় প্রবেশ করে৷ ফলে অনেক জাহাজ গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় নিয়েছে, ঘুরে যাওয়ার কারণে তেল খরচও গেছে বেড়ে৷

পরিবেশ

বজ্রপাত আরো ঘনঘন হবে

বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধির কারণে বজ্রপাত আরো ঘনঘন হবে৷ যদিও এতে দাবানলের ঝুঁকি বাড়বে৷ তবে বজ্রপাতের ফলে নাইট্রোজেন অক্সাইড উৎপন্ন হয় যা বিশ্বের বায়ুমণ্ডলির জন্য উপকারী৷

পরিবেশ

আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত বাড়বে

ঘুমিয়ে থাকা আগ্নেয়গিরিগুলো ভবিষ্যতে সক্রিয় হতে শুরু করলে অবাক হওয়ার কিছু নেই৷ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে এমনটা ঘটার আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা৷

পরিবেশ

আপনার রাগ বাড়বে

জলবায়ু পরিবর্তন আমাদের মুডও পরিবর্তন করে দেবে৷ বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মধ্যে অস্থিরতাও বাড়বে৷ এমনকি সহিংস আচরণ করার প্রবণতাও দেখা দেবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন৷

পরিবেশ

প্রাণীর আকার ছোট হবে

এই পরিবর্তনটি অবশ্য চোখে পড়তে সময় লাগবে৷ তবে কয়েক কোটি বছর আগে দৈত্যাকারের প্রাণিগুলো ছোট হয়ে গিয়েছিল জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেও৷ ভবিষ্যতেও তেমনটা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে৷