বাংলাদেশ

হজযাত্রা শুরু, জমজমের পানি সরবরাহ করবে বিমান

শুরু হয়েছে হজযাত্রা৷ এরই মধ্যে চলতি মৌসুমের প্রথম হজ ফ্লাইটটি পৌঁছেছে জেদ্দায়৷ চার শতাধিক হাজি নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটটি পৌঁছায়৷ জানা গেছে, এবারও জমজমের পানি বহনে কিছুটা কড়াকড়ি থাকছে৷

Saudi Arabien Mekka Pilger Kaaba (picture alliance/AP Photo/skajiyama)

৪১৮ জন হজযাত্রীকে নিয়ে সোমবার সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে যাত্রা করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ফ্লাইট বিজি-১০১১৷ স্থানীয় সময় বেলা সোয়া ১১টায় বিমানটি জেদ্দার কিং আব্দুল আজিজ বিমানবন্দরের হজ টার্মিনালে পৌঁছায়৷ বিমানবন্দরে বাংলাদেশের হজযাত্রীদের প্রথম দলটিকে স্বাগত জানান সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ এবং দুই দেশের কয়েকজন কর্মকর্তা৷

এর আগে, বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে উদ্বোধনী ফ্লাইটের হজযাত্রীদের বিদায় জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এবং ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান৷

এদিকে, গেল কয়েক বছর ধরেই বিমানে জমজমের পানি বহনে কিছুটা কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে৷ বিমানে করে তাঁরা ১০০ মিলিলিটার পানি বহন করতে পারবেন৷ তবে তাঁরা বাংলাদেশে ফিরে এলে বিমানবন্দরে তাঁদের হাতে পাঁচ লিটার করে পানি তুলে দেয়া হবে৷

মোট এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন বাংলাদেশি এ বছর হজে যাওয়ার সুযোগ পাবেন৷ এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন ১০ হাজার এবং বেসরকারিভাবে এক লাখ ১৭ হাজার ১৯৮ জন৷ সরকারি ব্যবস্থাপনায় দু'টি প্যাকেজে যাচ্ছেন হাজীরা৷ একটি প্যাকেজে খরচ পড়ছে তিন লাখ ৮১ হাজার ৫০৮ টাকা এবং অন্যটিতে তিন লাখ ১৯ হাজার ৩৫৫ টাকা৷ আর বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য সর্বনিম্ন প্যাকেজ নির্ধারণ করা হয়েছে এক লাখ ৫৬ হাজার ৫৩৭ টাকা৷

Saudi-Arabien Hadsch Massenpanik in Mina (picture-alliance/AP Photo)

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবার হজযাত্রীদের জেদ্দায় শুধু পৌঁছে দিতে ১৭৭টি এবং ঢাকায় ফিরিয়ে আনতে ১৬৯টি বিশেষ ফ্লাইট সুনির্দিষ্ট করে রেখেছে৷ এছাড়া আরো ৩০ থেকে ৩৩টি নিয়মিত ফ্লাইটেও যাত্রীদের আনা নেয়া করা হবে৷ এগুলোতে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত যাত্রীদের জেদ্দায় পৌঁছে দেয়া হবে৷ ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে ৬ সেপ্টেম্বর৷ চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত৷ এছাড়া, সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইনস পরিবহন করবে বাকি ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী৷

ইকনোমি ক্লাসের প্রত্যেক হজযাত্রী সর্বোচ্চ হাতব্যাগ বা কেবিন ব্যাগ ছাড়া সর্বোচ্চ দু'টি ব্যাগ বোর্ডিংয়ে দিতে পারবেন, যেখানে সর্বোচ্চ ৪৬ কেজি এবং বিজনেস ক্লাসে সর্বোচ্চ ৫৬ কেজি মালামাল নিতে পারবেন৷ সঙ্গে নিতে পারবেন না কোন ধারালো বস্তু – যেমন ছুরি, কাঁচি, নেইল কাটার, ধাতব দাঁত খিলান, তাবিজ বা গ্যাস জাতীয় বস্তু –যেমন অ্যারোসল এবং ১০০ মিলি লিটারের বেশি তরল পদার্থ হ্যান্ড ব্যাগেজে বহন করা যাবে না৷ তবে বিমান বাংলাদেশের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, যাত্রীরা ঢাকায় ফিরে এলে তাঁদের হাতে পাঁচ লিটার করে জমজমের পানি তুলে দেয়া হবে৷ চাঁদ দেখা সাপেক্ষে চলতি বছর ১ সেপ্টেম্বর হজ হতে পারে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

Albanian Shqip

Amharic አማርኛ

Arabic العربية

Bengali বাংলা

Bosnian B/H/S

Bulgarian Български

Chinese (Simplified) 简

Chinese (Traditional) 繁

Croatian Hrvatski

Dari دری

English English

French Français

German Deutsch

Greek Ελληνικά

Hausa Hausa

Hindi हिन्दी

Indonesian Bahasa Indonesia

Kiswahili Kiswahili

Macedonian Македонски

Pashto پښتو

Persian فارسی

Polish Polski

Portuguese Português para África

Portuguese Português do Brasil

Romanian Română

Russian Русский

Serbian Српски/Srpski

Spanish Español

Turkish Türkçe

Ukrainian Українська

Urdu اردو