অভিবাসন প্রত্যাশীদের মৃত্যু রুখতে শুধু খরচ বাড়াল ইইউ

ভূমধ্যসাগরে অভিবাসন প্রত্যাশীদের মৃত্যুর মিছিল বন্ধ করার জন্য ‘ট্রাইটন'-এর ব্যয় তিনগুণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইইউ৷ ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়৷

ভূমধ্যসাগর থেকে অভিবাসন প্রত্যাশীদের উদ্ধারের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের সমন্বিত প্রয়াস গত অক্টোবর থেকে বন্ধ রয়েছে৷ এখন শুধু ‘ট্রাইটন' নামের একটি কার্যক্রম চলছে, যার অধীনে শুধু ইউরোপীয় দেশগুলোর ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত জলসীমার তদারক করা যায়৷ বৃহস্পতিবার সেই কার্যক্রমের জন্য ব্যয় তিনগুণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইইউ নেতৃবৃন্দ৷

লিবিয়া থেকে ইটালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে ডুবে যায় একটি মাছ ধরার জাহাজ৷ অভিবাসন প্রত্যাশীতে বোঝাই ছিল জাহাজটি৷ বহন ক্ষমতার চেয়ে অনেক গুণ বেশি যাত্রী পরিবহন করতে গিয়ে জাহাজটি সাগরেই ডুবে যায়৷ এ দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ৮০০ জন মারা গেছেন বলে বার্তাসংস্থাগুলো জানাচ্ছে৷

ভূমধ্যসাগরের এই মর্মন্তুদ ঘটনার পরই আবার অভিবাসন প্রত্যাশীদের মৃত্যু বন্ধ করার উপায় খুঁজতে নড়েচড়ে বসে ইউরোপীয় দেশগুলো৷ ইটালির আহ্বানে বৃহস্পতিবার সেই উদ্দেশ্যেই বেলজিয়ামে বৈঠকে বসেছিলেন ইইউভুক্ত দেশগুলোর নেতৃবৃন্দ৷

বৈঠক শেষে জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেন, ‘‘আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিতে চাই৷ এ কারণেই খরচ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হলো৷'' ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জঁ-ক্লোদ ইয়ুঙ্কারও বৈঠকের সিদ্ধান্তের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন৷ ইইউ জানিয়েছে, ট্রাইটন-এর ব্যয় বাড়ানোর উদ্দেশ্য ভূমধ্যসাগর দিয়ে অভিবাসন প্রত্যাশীদের প্রবেশ বন্ধের উদ্যোগকে আরো কার্যকর করা৷ সমুদ্রসীমা তদারকের জন্য আরো কিছু হেলিকপ্টার ও হাহাজ কিনে ‘ট্রাইটন'-এর কার্যকারিতা বাড়ানো হবে৷

এসিবি/এসবি (রয়টার্স, এপি, ডিপিএ)