আদিবাসী ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের জন্য কারা দায়ী?

রাঙামাটির বিলাইছড়িতে ধর্ষণের ঘটনাটি ‘আর্মির পোশাক পরা' লোকজন ঘটিয়েছে বলে ঘটনার শিকারদের উদ্ধৃত করে অভিযোগ করেছেন চাকমা রানি ইয়েন ইয়েন৷ সেনাবাহিনী এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে, আটক হয়েছে আনসারের এক সদস্য৷

বিলাইছড়িতে ২১ জানুয়ারি রাতে দুই মারমা সহোদরা ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হন৷ এঁদের একজন ১৮ বছরের তরুণী, যিনি ধর্ষণের শিকার হয়েছে৷ আর তাঁর ১৪ বছরের কিশোরী বোন হয়েছেন যৌন নির্যাতনের শিকার৷ সেনাবাহিনীর সার্চিং অপারেশন চলাকালে এই ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ৷ এই মুহূর্তে এঁরা দু'জন রাঙামাটি সদর হাসাপাতালে আছেন৷ হাসপাতাল ছাড়তে চাইলেও তাঁদের সেখানে থাকতে বাধ্য করা হয়েছে বলেও জানা গেছে৷ হাসপাতালে তাঁদের দেখতে যাওয়া মানবাধিকার কমিশনের সদস্য বঞ্চিতা চাকমা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘তাদের একজন ধর্ষণের শিকার হয়েছে৷ অথচ এখনো কোনো মামলা হয়নি৷ তারা ভয়ের মধ্যে আছেন৷ জেলা প্রশাসক একটা প্রতিবেদন দেবেন৷ ঐ প্রতিবেদনের পরে আমরা পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেব৷’’

তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘‘দুই বোনের মধ্যে একজন বাংলায় কথা বলতে পারে না, চাকমাও পারে না৷ ছোট বোন কিছুটা বাংলা বলতে পারে৷ সে জানিয়েছে যে, আর্মিরা ছিল ওখানে৷ আর্মি করেছে বলে জানিয়েছে সে৷’’

এখন লাইভ
00:56 মিনিট
মিডিয়া সেন্টার | 25.01.2018

‘এখনো কোনো মামলা হয়নি, তারা ভয়ে আছেন’

মেয়েটি পোশাকের কোনো বর্ণনা দিয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘ওরা আর্মির পোশাকের কথা বলেছে৷’’

এদিকে রাঙামাটি সার্কেল প্রধান রাজা দেবাশীষ রায় রাঙামাটি সদর হাসপাতালে ঐ দুই বোনকে দেখতে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর একটি ফেসবুক পোস্টে বলেন, ‘‘তাঁদের ভাষ্য অনুসারে, যা আমি অনুবাদের মাধ্যমে জানলাম, তাঁদের একজন ধর্ষিত হয়েছেন দু'জন সেনাসদস্য দ্বারা (প্রাপ্ত বয়স্ক বড় বোন, যিনি কেবল মারমা ভাষায় কথা বলেন এবং অপরজন যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন, একই ব্যক্তিদের দ্বারা)৷’’

দেবাশীষ রায়ের সঙ্গে হাসপাতালে যান তাঁর স্ত্রী এবং চাকমা রানি ইয়েন ইয়েন এবং জাতীয় মানবাধিকার কমিশন সদস্য বঞ্চিতা চাকমা৷ চাকমা রানি ইয়েন ইয়েন আলাদা আরেকটি ফেসবুক পোস্টে বলেন, ‘‘তারা বলেছে, আর্মিদের পোশাক পরা লোকরা চর্ট লাইট নিভিয়েছে, কথা বলতে দেয় নাই৷’’

রানি ইয়েন ইয়েনের দাবি, ‘‘অনেক বাধা পেরিয়ে তাদের রাঙামাটি সদর হাসপাতালে যেতে হয়৷ তারা সেখানে যাতে না যেতে পারেন, সেজন্য নানা ধরনের অজুহাত দেখানো হয়৷ এমনকি তাদের সঙ্গে মারমা ভাষায় কথা বলতেও বাধা দেয়া হয়৷ হাসপাতালে ওই দুই বোনকে সব সময় ঘিরে আছে সাদা পোশাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা৷’’

এখন লাইভ
03:23 মিনিট
মিডিয়া সেন্টার | 25.01.2018

‘ তারা যে শব্দটা বলেছে তা বাংলায় অনুবাদ করলে সেনা দাঁড়ায়’ (ফা...

রাজা দেবাশীষ রায় ডয়চে ভেলেকে টেলিফোনে বলেন, ‘‘তাঁরা বলেছেন, ‘সেটা সেনা না খাকি কাপড় তা আমরা জানি না৷’ তবে তাদের ভাষায় তারা যে শব্দটা বলেছে বাংলায় অনুবাদ করলে সেনা দাঁড়ায়৷ আসলে সেটা সেনা, না বিজিবি, না পুলিশ, না আনসার, সেটা তো আমরা বলতে পারব না৷’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘ঐ দুই বোন এখন হাসপাতালে আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় আছেন৷ কোনো মামলা হয়নি৷ আমরা মানবাধিকার কমিশনকে অনুরোধ করেছি তাঁদের যেন আইনজীবী দেয়া হয়৷ মারমা ভাষা জানেন এমন আইনজীবীও আছেন৷’’

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের পরিচালক কর্ণেল রাশেদুল হাসান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘সেনা সদস্যরা সেখানে সার্চ করছিল৷ কিন্তু যেখানে সার্চ করছিল, মেয়েরা সেই বাড়ির না৷ ওটা তার আশেপাশের একটা বাড়ি, যে বাড়িতে একজন আনসার সদস্য ঢুকেছিল৷ আনসার সদস্য যখন ওখানে ঢোকে, তখন মেয়েগুলো চিৎকার করে ওঠে৷ চিৎকার করার পর পরই আমাদের আর্মির পেট্রোলে যারা ওখানে ছিল, তারা ছুটে যায় এবং আনসার সদস্যকে আটক করে৷ তাকে আটক করে আনসার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে এবং সেই আনসার সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে৷’’

এখন লাইভ
01:24 মিনিট
মিডিয়া সেন্টার | 25.01.2018

‘তারা অস্ত্রধারী লোকজন দেখে চিৎকার ও কান্নকাটি শুরু করে’

রাঙামাটির শিলছড়ি ১০ আনসার ব্যাটেলিয়নের কমান্ডিং অফিসার আফজাল হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘সেবাহিনীর সার্চিং অভিযানে আনসার সদস্যরাও তাদের সহায়তায় যোগ দিয়েছিল৷ ঐ বাড়িতে পরনো সদস্য আছে কিনা তা দেখতে সার্চ চলছিল৷ আনসারের সুবেদার গিয়াস উদ্দিন তা দেখতে ঘরের মধ্যে লাইট মারে৷ সেখানেই মেয়ে দু'জন ছিল৷ ছিল তাদের ছোট ভাইও৷ তারা অস্ত্রবাহী লোকজন দেখে চিৎকার ও কান্নকাটি শুরু করে৷ আনসার সদস্য ঘরের ভিতরে ঢুকেছিলেন আর একজন সেনাসদস্য বাইরে গেটে দাঁড়িয়ে ছিলেন৷ সার্চ করা ছাড়া অন্য কোনো উদ্দেশ্য তাঁদের ছিল না৷ আমরা আনসার সদস্যকে ক্লোজড করেছি৷’’

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘‘ভুক্তভোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে৷ কর্তব্যরত নার্সের সাথে কথা বলে যেটা জেনেছি, দুই বোনের মধ্যে একজনের অবস্থা খারাপ৷ তবে প্রকৃত ঘটনা কী ঘটেছে তা জানতে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করা হবে৷’’

চাকমা রানি ইয়েন ইয়েন রাঙামাটির সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘আমি তাদের সাথে কথা বলে জেনেছি যে, সন্ত্রাসীদের তল্লাশি চালানোর নামে ঐ ব্যক্তিরা ঘরে প্রবেশ করে৷ এ সময় ছোট বোনকে যৌন হয়রানি করা হয় এবং বড় বোনকে ধর্ষণ করা হয়৷’’ এ কথা তিনি ফেসবুক পোস্টেও বলেন৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

ধান চাষ

চাকমাদের জীবিকা প্রধানত কৃষি কাজ৷ পার্বত্য চট্টগ্রামের সমতল অংশে স্বাভাবিক সেচ পদ্ধতিতে মৌসুমী কৃষি কাজ, এবং পাহাড়ি অঞ্চলে জুম চাষের মাধ্যমে চাকমা জনগোষ্ঠী বিভিন্ন খাদ্যশস্য ও রবিশস্য উৎপাদন করে থাকে৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

পুরুষ-নারী সমানে সমান

আদিবাসী নারীরা পুরুষদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে৷ এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে নারী পুরুষ একসাথে ধানের জমিতে কাজ করছে৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

বাঁশের অঙ্কুর সংগ্রহ

তিন চাকমা নারী বাঁশের অঙ্কুর নিয়ে নৌকায় করে যাচ্ছেন৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

হলুদ সংগ্রহ

এক চাকমা পুরুষ হলুদ সংগ্রহ করে ঝর্ণার পানিতে সেগুলো ধুয়ে নিচ্ছেন৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

স্কুলে যাওয়া

একটি আদিবাসী কিশোরী স্কুলে যাচ্ছে৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

চিংড়ি মাছ সংগ্রহ

দুইটি আদিবাসী বালক-বালিকা ঝিরি (ছোট ঝর্ণা) থেকে চিংড়ি মাছ সংগ্রহ করছে৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

ঐতিহ্যবাহী কম্বল বোনা

এক চাকমা নারী তাদের ঐতিহ্যবাহী কম্বল বুনছেন৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

জাল দিয়ে মাছ ধরা

জাল দিয়ে নদীতে মাছ ধরছেন আদিবাসী নারী-পুরুষ৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

বৈসাবি উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশনা৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

ধর্ষণের শিকার

২১ আগস্ট ২০১২ সালে মাত্র ১১ বছর বয়সি এই ত্রিপুরা মেয়েটি খাগড়াছড়িতে এক পুলিশ কনস্টেবলের হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছিল৷ (ছবি: সুমিত চাকমা)

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ

২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে রাঙামাটিতে পাহাড়িদের উপর জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বাঙালিদের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ৷ (ছবি: পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ)

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

ধর্ষণের প্রতিবাদ

২০১২ সালে রাঙামাটির সুজাতা নামে এক ১২ বছরের চাকমা কিশোরীকে ধর্ষণ করে হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছিল আদিবাসী শিক্ষার্থীরা৷ (ছবি: সুমাইয়া সাঈদ)

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

কল্পনা চাকমা

১৯৯৬ সালের ১২ জুন কল্পনা চাকমাকে তুলে নিয়ে যায় সেনাবাহিনীর সদস্যরা৷ তার খোঁজ আজও মেলেনি৷ এই ছবিটি এঁকেছেন প্রজ্ঞান চাকমা৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

চাকমাদের উপর বাঙালিদের হামলা

২০১৪ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে রাঙামাটির বোগাচারিতে তিনটি আদিবাসী গ্রামে হামলা চালায় বাঙালিরা৷ (ছবি: হিমেল চাকমা)

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

৫৭ টি বাড়ি পোড়ানো হয়

চাকমাদের ৫৭টি বাড়ি পুড়িয়ে ছাড়খার করে দেয়৷ নিঃস্ব হয়ে যায় অনেক পরিবার৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

খাসিয়া উচ্ছেদ

২০১৬ সালের জুন মাসে সিলেটের মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলের নাহার পুঞ্জিবাসী খাসিয়াদের উচ্ছেদের নোটিশ জারি করে জেলা প্রশাসন৷ (ছবি: খোকন সিং)

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

৭০০ মানুষ বাস্তুহারার আশঙ্কা

উচ্ছেদ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভারতীয় সীমান্তবর্তী আদিবাসী গ্রাম নাহার-১ পান পুঞ্জির ৭০০ মানুষকে অন্যত্র চলে যেতে বলা হয়েছে৷ বাড়িঘর ছেড়ে যাওয়ার নোটিশ পাওয়া মানুষদের মধ্যে নারী, শিশু ও বৃদ্ধই বেশি৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

সাঁওতালদের উপর হামলা

২০১৬ সালে ৬ নভেম্বর গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চিনিকলের বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ও সাঁওতালদের সংঘর্ষ থামাতে গুলি চালায় পুলিশ৷ এতে তিন সাঁওতাল নিহত হন, আহত হন অনেকে৷

বাংলাদেশের আদিবাসীদের দৈনন্দিন জীবনযাপন

জমি অধিগ্রহণ নিয়ে বিরোধ

সাঁওতাল ও বাঙালিদের ১৮টি গ্রামের ১ হাজার ৮৪০ দশমিক ৩০ একর জমি ১৯৬২ সালে অধিগ্রহণ করে চিনিকল কর্তৃপক্ষ আখ চাষের জন্য সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার গড়ে তুলেছিল৷ চিনিকলের জন‌্য অধিগ্রহণ করা ওই জমিতে কয়েকশ’ ঘর তুলে সাঁওতালরা বসবাস করে আসছিল কয়েক বছর ধরে৷ চিনিকল কর্তৃপক্ষ ওই জমি উদ্ধার করতে গেলে সংঘর্ষ বাঁধে৷

আপনার কী মনে হয়? এই ঘটনার পিছনে সত্যিই কি সেনাবাহিনীর হাত রয়েছে? জানান নীচের ঘরে৷

আমাদের অনুসরণ করুন