উদ্বাস্তুদের আটক করে টাকা নেয় পুলিশ!

চেক প্রজাতন্ত্র সরকারের বিরুদ্ধে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রতি নিষ্ঠুর আচরণের অভিযোগ উঠেছে৷ আটক করে টাকা নেয়া হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে৷ চেক সরকার অবশ্য সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷

পুর্ব ইউরোপের বেশিরভাগ দেশ শুরু থেকেই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে৷ এক পর্যায়ে দেশগুলো ইইউ-র কোটা অনুযায়ী সিরিয়া এবং আফ্রিকা থেকে আসা অসহায় মানুষদের নিতে রাজি হলেও দেশগুলোতে পরিস্থিতি এখনো খুব অনুকূল নয়৷ বিশেষ করে চেকপ্রজাতন্ত্রে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রতি অমানবিক আচরণের অভিযোগ উঠেছে৷ মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকা থেকে ইউরোপমুখী জনস্রোতে ভাটার টান আনার জন্য পরিকল্পিতভাবেই আগতদের মনে ভীতি এবং আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে বলে বিশ্লেষকদের ধারণা৷

অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আটক করে আটকাবস্থায় প্রতিদিনের জন্য ৯ ইউরো করে নেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে৷

প্রথমে চেক প্রজাতন্ত্রের কয়েকটি মানবাধিকার সংস্থা এবং তারপর জাতিসংঘের পক্ষ থেকেও অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রতি এমন আচরণের নিন্দা জানানো হয়৷

কিন্তু চেক সরকার সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷ সে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিলান শভানেচ নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে জানান, গত এক বছরে ৭ হাজার অবৈধ অভিবাসীকে আটক করেছে পুলিশ৷ পূর্ব ইউরোপের এই দেশের মানুষের বেশ বড় একটা অংশ অভিবাসনবিরোধী৷ সে কারণেই বর্তমান সরকার আরো বেশি অভিবাসীবিমুখ আচরণ করছে বলেও বিশ্লেষকরা মনে করছেন৷ ২০১৫ সালের প্রথম ৯ মাসে মাত্র ১১শ' অভিবাসনের আবেদন গ্রহণ করেছে চেক প্রজাতন্ত্র সরকার৷

এসিবি/জেডএইচ (ডিডাব্লিউ)

আমাদের অনুসরণ করুন