চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

বাংলার বুলবুল আর নেই

হৃদরোগে ভুগছিলেন একাধারে সংগীত পরিচালক, গীতিকার ও সুরকার হিসাবে সুনাম অর্জন করা শিল্পী আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল৷ গত বছর তাঁর হার্টের ধমনীতে আটটি ব্লক ধরা পড়ে৷ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে চিকিৎসা নেয়ার পরএরপর সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি৷ তবে মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ অবস্থার অবনতি হয়৷ কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছনোর আগেই মারা যান বুলবুল৷

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

অন্তরে যাঁর মুক্তিযুদ্ধ...

মাত্র ১৫ বছর বয়েসে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন দেশপ্রেমিক এই শিল্পী৷ সংগীতেও বারবার ফিরে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা৷ এই সত্ত্বার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই তাঁর একমাত্র পুত্র সামির আহমেদ বলেছেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি, আব্বাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সংরক্ষিত স্থানে দাফন করার অনুমতি দিন৷’’ এ সময় শিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘‘আজ চলে গেলেন আমাদের সঙ্গীতের মহাজন৷’’

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি ও স্পিকারের শ্রদ্ধা

রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, ‘‘তাঁর মৃত্যুতে দেশ একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী ও সুরকারকে হারিয়েছে৷ তাঁর মৃত্যুতে দেশের সংগীতাঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হলো৷’’

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

সাবিনা ইয়াসমিন বললেন, ‘এ ক্ষতি পূরণ হবার নয়’

বিশিষ্ট শিল্পী আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মৃত্যুতে সংগীত মহলে শোকের পরিবেশ৷ ইতিমধ্যে তাঁর আফতাবনগরের বাসায় শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানাতে গিয়েছেন শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন৷ সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘‘তার প্রয়াণে যে ক্ষতি হলো, তার শূন্যস্থান কখনোই পূরণ হবার নয়৷ বুলবুলের মতো মিউজিক ডিরেক্টর কখনো আসেনি; ভবিষ্যতেও আসবে কি না জানি না৷ তাঁকে সালাম জানাই৷’’

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

শোকাচ্ছন্ন অ্যান্ড্রু কিশোর

তাঁর সাঙ্গীতিক সহকর্মী অ্যান্ড্রু কিশোরও বাসায় এসে তাঁর শ্রদ্ধা জানান বুলবুলের আত্মার প্রতি৷

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

অদ্ভূত সেই সুর...

বুলবুলের সুরারোপ করা অনেক গানই স্মরণীয়৷ তাঁর ‘সবকটা জানালা খুলে দাও না’ ও ‘ও আমার বাংলা মা’-র মতো অসংখ্য গান মানুষের মুখে মুখে ফিরেছে, আগামীতেও ফিরবে৷ তাঁর উল্লেখযোগ্য গানগুলোর মধ্যে আরো রয়েছে ‘মাঝি নাও ছাইড়া দে’, ‘ও আমার আট কোটি ফুল দেখ গো মালি’, ‘একদিন ঘুম ভেঙে দেখি তুমি নাই’ ইত্যাদি৷ ওপরের ছবিতে দেখা যাচ্ছে কন্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবী ও সামিনা নবীকে৷ তাঁরাও গিয়েছিলেন শিল্পীকে শ্রদ্ধা জানাতে৷

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

চলচ্চিত্রে বুলবুল

‘নয়নের আলো’, ‘মরণের পরে’, ‘আম্মাজান’, ‘প্রেমের তাজমহল’,‘ অন্ধ প্রেম’, ‘রাঙ্গা বউ’, ‘প্রাণের চেয়ে প্রিয়’, ‘তোমাকে চাই’, ‘মন মানে না’, ‘জীবন ধারা’, ‘সাথি তুমি কার’, ‘হুলিয়া’, ‘অবুঝ দুটি মন’, ‘লক্ষ্মীর সংসার’, ‘মাতৃভূমি’, ‘মাটির ঠিকানা’সহ প্রায় কয়েকশ’ ছবিতে সংগীত পরিচালনা করেন বুলবুল৷ ওপরের ছবিতে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের শোকসন্তপ্ত দুই ছাত্রী৷

চলে গেলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল

স্বীকৃতি

প্রয়াত শিল্পী আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলকে বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন সময়ে নানান পুরস্কারে ভূষিত করেছে৷ একুশে পদক, রাষ্ট্রপতি পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এ শিল্পীর প্রয়াণে শোকাহত সমাজের সব স্তরের মানুষ৷

বাংলাদেশের প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক, গীতিকার, সুরকার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন৷ এই প্রণম্য শিল্পীর মৃত্যুতে শোকাচ্ছন্ন শিল্পীমহল৷ তাঁকে ডয়চে ভেলে শ্রদ্ধা জানাচ্ছে এই ছবিঘরে...

এসএস/এসিবি

আমাদের অনুসরণ করুন