‘জার্মানিতে উগ্র দক্ষিণপন্থিদের তাণ্ডব গ্রহণযোগ্য নয়'

জার্মানিতে বিদেশি বিদ্বেষের ঘটনাবলির ফলে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন৷ পুলিশের ভূমিকা নিয়েও সমালোচনা বাড়ছে৷ এদিকে আরও এক বিদেশির উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে৷

জার্মানির কেমনিৎস শহরে গত সপ্তাহান্তে চরম দক্ষিণপন্থিদের তাণ্ডব ও বিদেশি বিদ্বেষের খোলামেলা বহিঃপ্রকাশের পর উত্তর-পূর্বে ভিসমার শহরে এক বিদেশির উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে৷ পুলিশ সূত্র অনুযায়ী, ২০ বছরের সেই তরুণ বাড়ি ফেরার সময় তিনজন জার্মানভাষী ব্যক্তি প্রথমে বিদেশি হিসেবে তার উদ্দেশ্যে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করে, তারপর তাকে প্রহার করে৷ আক্রান্ত ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে৷

জার্মানিতে বিদেশি বিদ্বেষের সাম্প্রতিক ঘটনা আন্তর্জাতিক স্তরেও তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে৷ জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান জেইদ রা'আদ আল হুসেন জেনিভায় সাংবাদিকদের বলেন, চরম দক্ষিণপন্থি বিক্ষোভকারীরা জার্মানির রাজপথে নাৎসি অভিবাদন করছে, এমন দৃশ্য অত্যন্ত জঘন্য৷ তিনি ইউরোপের অতীত যুদ্ধগুলির স্মৃতি মুছে যাবার বিষয়ে সতর্ক করে দেন৷ ইউরোপের বিভিন্ন প্রান্তে চরম দক্ষিণপন্থি শক্তির উত্থানের প্রেক্ষাপটে তিনি এমন মন্তব্য করেন৷ শুধু জাতিসংঘ নয়, ইউরোপের সব সরকারি ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি৷

জার্মানিতেও বিদেশি বিদ্বেষ ও তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে জোরালো তর্কবিতর্ক চলছে৷ কিন্তু চরম দক্ষিণপন্থি শক্তি সে সব অগ্রাহ্য করে তাদের শক্তি প্রদর্শনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷

চরম দক্ষিণপন্থি এএফডি দল ও ইসলাম-বিরোধী পেগিডা আন্দোলন আগামী শনিবার কেমনিৎস শহরেই এক যৌথ জনসভার ঘোষণা করেছে৷ তারা জানিয়েছে, সেই শহরে গত সপ্তাহান্তে নিহত ব্যক্তি এবং যারা ‘চাপানো বহু সংস্কৃতির সহাবস্থানের শিকার' হয়েছে, তাদের জন্য শোকসভা অনুষ্ঠিত হবে৷ এএফডি দলের এক নেতা জানিয়েছেন, তাঁর দল মোটেই উসকানি দিতে এমন জনসভা করছে না৷ গোটা দেশে অনেক মানুষের মেজাজ অত্যন্ত বিষণ্ণ, যার পেছনে যথেষ্ট কারণ রয়েছে বলে মনে করেন তিনি৷

জার্মানির পূর্বাঞ্চলে চরম দক্ষিণপন্থি গোষ্ঠীগুলির প্রভাব-প্রতিপত্তি এবং এ ক্ষেত্রে আঞ্চলিক পুলিশের ভূমিকা নিয়ে জোরালো সমালোচনা শোনা যাচ্ছে৷ চরম দক্ষিণপন্থি গোষ্ঠীগুলি কেমনিৎস শহরে হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশের সমন ফাঁস করে ইন্টারনেটে প্রকাশ করার পর স্যাক্সনি রাজ্যের উপ মুখ্যমন্ত্রী পুলিশের একাংশের সমালোচনা করেন৷ জেনেশুনে এমন অপরাধ মোটেই গ্রহণযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি৷ উল্লেখ্য, পুলিশ বাহিনীর মধ্যে নব্য নাৎসি ও পেগিডার প্রতি সহানুভূতির অভিযোগ এর আগেও উঠেছে৷

আমাদের অনুসরণ করুন