বিমানের ইমারজেন্সি ল্যান্ডিংয়ের ভিডিও ভাইরাল

যুক্তরাষ্ট্রে একটি যাত্রীবাহী বিমানের ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে সামাজিক গণমাধ্যমে৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে ইমারজেন্সি ল্যান্ডিংয়ের পর যাত্রীদের নামার দৃশ্য৷

বিমানের কোথাও আগুন ধরে গিয়েছিল৷ তাই কেবিনের ভেতর ধোঁয়া উঠছিল৷ আর তাতেই দুর্ঘটনার আশঙ্কায় যাত্রীরা সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়ে৷

যুক্তরাষ্ট্রের সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইন্সের বিমানটি জরুরি ল্যান্ডিং করে টেক্সাসে৷ ডালাসে যাবার কথা ছিল এটির৷ এরপর যাত্রীরা বিমান থেকে নামার জন্য হুড়োহুড়ি করছেন৷ লাফিয়ে নামছেন বিমানের উইং দিয়ে৷

ব্র্যান্ডন কক্স নামের এক যাত্রী ভিডিওটি করেছেন৷ তার ভিডিও করা দেখেও বোঝা যায় যে, তিনিও আতঙ্কিত ছিলেন৷ তিনি বলছিলেন যে, প্রায় আট ফুট উচ্চতা লাফিয়ে বা স্লাইড করে নামতে হচ্ছিল যাত্রীদের৷

‘‘খুব কঠিন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল৷ তবে সবাই নিরাপদে নামতে পেরেছেন৷'' গণমাধ্যমকে বলছিলেন কক্স৷

বিমানটিতে ১৪০ জন যাত্রী ছিলেন৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

কেন এই দুর্ঘটনা?

বিষয়টি এখনো রহস্যাবৃত৷ ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের আগে পাইলটের সঙ্গে বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণকক্ষের কথিত কথোপকথনের একটি অডিও ইউটিউবে প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে অনেকেই মনে করছেন, কোনদিক দিয়ে রানওয়েতে নামা নিরাপদ এ নিয়ে পাইলটের মনে বিভ্রান্তি দেখা দেয়ার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

নেপালে তদন্ত

দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানের জন্য ইতিমধ্যে নেপালে তদন্ত শুরু হয়েছে৷ বিমানের ব্ল্যাকবক্স উদ্ধারের পরই্ তদন্ত শুরুর এ উদ্যোগ নেয়া হলো৷ তদন্তে সহযোগিতা করার জন্য ইউএস-বাংলার সিইও ও অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ইতিমধ্যে কাঠমান্ডু পৌঁছেছেন৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

বিমানবন্দরের ছয় কর্মকর্তা বদলি

সোমবার দুর্ঘটনার সময় কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে যে ছয় কর্মকর্তা ছিলেন, তাঁদের প্রত্যেককেই বদলি করা হয়েছে৷ বিমান কর্তৃপক্ষ অবশ্য বলছে, শুধু ভয়াবহ দুর্ঘটনা প্রত্যক্ষ করার ধাক্কা সামলানোর সুযোগ দিতেই বদলি করা হয়েছে তাঁদের৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

শোক

বাংলাদেশ এবং নেপাল নামের দু’টি দেশের মাঝের আটশতাধিক কিলোমিটারের দূরত্ব যেন ঘুচিয়ে দিয়েছে এই দুর্ঘটনা৷ দু’দেশেই এখন শোকের ছায়া৷ স্বজন হারানোর বেদনা আর আহতদের চিন্তায় অশ্রু ঝরছে দু’দেশেই৷ ওপরের ছবিতে স্বজনের জন্য নেপালি এক তরুণীর কান্না৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

প্রিয়জন হারানোর বেদনা

দুর্ঘটনার পর কাঠমান্ডুর হাসপাতালগুলোতে নিয়ে আসা আহতদের মাঝে চেনামুখ খুঁজতে ছুটে যান অনেকে৷ অনেকেই ফিরে যান স্বজন হারানোর বেদনা নিয়ে৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

আহতদের চিকিৎসা

আহত এবং মৃতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি এখনো কাটেনি৷ সোমবার প্রায় সংবাদমাধ্যমই ৫০ জনের মৃত্যুর খবর প্রচার করে৷ তবে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি অসিত বরণ সরকার জানিয়েছেন, ফ্লাইট বিএস২১১ এর ৭১ আরোহীর মধ্যে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, বাকি ২২ জন এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

২৬ জন বাংলাদেশি নিহত

বিমান দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ২৬ জন বাংলাদেশি৷ চারজন ক্রু এবং ২২ যাত্রী৷ এছাড়া আহত ১০ বাংলাদেশিকে কাঠমান্ডুর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

কাঠমান্ডুর আকাশ

দূরে বিমান পুড়ছে আর ধোঁয়ায় ঢেকে যাচ্ছে কাঠমান্ডুর আকাশ৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

মৃতদেহ ব্যবস্থাপনা

কাঠমান্ডুতে খোলা হয়েছে ‘ডেডবডি ম্যানেজমেন্ট কো-অর্ডনিনেশন ডেস্ক’৷ এই ডেস্কে কর্মরতদের দায়িত্ব দুর্ঘটনায় নিহতদের লাশ সংরক্ষণ এবং তা স্বজনদের হাতে তুলে দেয়া৷

বাংলাদেশ এবং নেপালে শোকের ছায়া

জীবন থেমে থাকে না

একদিকে শোক, তবে অন্যদিকে ঠিকই জীবন বয়ে চলেছে আপন নিয়মে৷ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ভেঙে চুরমার, পুড়ে যাওয়া বিমানটির পাশ দিয়েই আকাশে উড়ছে নতুন নতুন বিমান৷

জেডএ/ডিজি

আরো প্রতিবেদন...

01:32 মিনিট
মিডিয়া সেন্টার | 47 মিনিট আগে

আজকের খবর

বিশ্ব | 1 ঘণ্টা আগে

জেলেরা ইলিশ ধরবেন কখন?

আমাদের অনুসরণ করুন