বেথলেহেম যাত্রা ছিল অভিবাসী সংকটের মতো: পোপ

জোসেফ আর মেরির বেথলেহেম যাত্রাকে চলতি উদ্বাস্তু সংকটের সঙ্গে তুলনা করেছেন পোপ ফ্রান্সিস৷ তাঁর মতে,অভিবাসীদের মর্যাদা দান খ্রিষ্টধর্মের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ৷

সেন্ট পিটার্স বাসিলিকায় ক্রিসমাস ইভের প্রার্থনাসভায় পোপ বলেন, বাইবেলের আমলে জোসেফ আর মেরি যা করেছিলেন,  আজকের উদ্বাস্তুরা ঠিক সেভাবেই দেশ ছেড়ে পালাচ্ছেন৷

দশ হাজার বিশ্বাসীর সামনে পোপ ফ্রান্সিস বলেন যে, যিশুখ্রিষ্টের বাবা-মায়ের পলায়ন সম্পর্কে নিউ টেস্টামেন্টে যা বলা আছে, আজ লক্ষ লক্ষ মানুষ সুন্দরতর জীবনের আশায় ঠিক সেইভাবে স্বদেশ পরিত্যাগ করতে বাধ্য হচ্ছেন৷ কোনো মানুষ ‘‘পৃথিবীতে তাদের জন্য কোনো জায়গা নেই,'' এই অনুভূতির সম্মুখীন হবে না, বলে পোপ আশা প্রকাশ করেন৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

সবার নজর ছিল যেদিকে

মঙ্গলবার সকাল থেকেই সবার নজর ছিল একটি বৈঠকের দিকে৷ মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদ-এ যাচ্ছেন ক্যাথলিক সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মগুরু ফ্রান্সিস৷ সেখানে নোবেলজয়ী অং সান সু চির সঙ্গে দেখা হবে, কথা হবে তাঁর৷ সবার আশা, গুরুত্বপূর্ণ এ বৈঠকে মানবতাবাদী পোপ রোহিঙ্গা সংকট নিরসনের লক্ষ্যে ইতিবাচক কিছু বলবেন৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

সাদর অভ্যর্থনা

৫ কোটি ১০ লাখ মানুষের দেশ মিয়ানমারে মাত্র ৭ লাখ ক্যাথলিক খ্রিষ্টানের বসবাস৷ তারপরও সোমবার ইয়াঙ্গনের রাস্তায় নেমেছিল মানুষর ঢল৷ ছবিতে বিমানবন্দরে পোপকে বরণ করে নিচ্ছে শিশুরা৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

‘সৌভাগ্য’ উদযাপন

পোপ ফ্রান্সিসকে স্বাগত জানাতে দেশের নানা প্রান্ত থেকে ছুটে এসেছিলেন ক্যাথলিকরা৷ এক ধর্মগুরু জানালেন, তাঁর সঙ্গে মিয়ানমারের দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চল থেকে প্রায় ১৮’শ ক্যাথলিক এসেছেন ইয়াঙ্গনে৷ তিনি বলেন, ‘‘আমরা এখানে পবিত্র পিতাকে দেখতে এসেছি৷ এমন ঘটনা তো শতবর্ষে একবার ঘটে৷’’

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

সংখ্যালঘুদের হাস্যোজ্জ্বল উপস্থিতি

মিয়ানমারের অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষরাও ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে পোপকে স্বাগত জানাতে এসেছিলেন৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

‘বৈচিত্র্যের মাঝে ঐক্য’

এর আগে ইয়াঙ্গনে মিয়ানমারের সব ধর্মের নেতাদের সঙ্গে দেখা করেন পোপ ফ্রান্সিস৷ মিয়ানমারের ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের আর্চ বিশপের বাসভবনে অনুষ্ঠিত সভায় পোপ বৈচিত্র্যের মাঝে যে ঐক্য, তার গুরুত্ব মনে রাখার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান৷ তবে সেখানে তিনি রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কিছু বলেননি৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

মানবিক সংকট

রাখাইনে ব্যাপক হারে হত্যা ও ধর্ষণ চালানোর ফলে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ‘রোহিঙ্গাদের নির্মূল’ করার অভিযোগ তোলে জাতিসংঘ৷ গত আগস্টে রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযান শুরুর পর থেকে মিয়ানমার ছেড়ে ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে৷ গত কয়েক দশকে বিভিন্ন সময়ে যাওয়াদের ধরলে এখন ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা রয়েছে বাংলাদেশে৷ এমন পরিস্থিতিতে মিয়ানমারের মাধ্যমে দক্ষিণ এশিয়া সফরে এলেন পোপ ফ্রান্সিস৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

সেনাপ্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ

সোমবার পোপ ফ্রান্সিস মিয়ানমারে পৌঁছানোর পরই তাঁর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন মিয়ানমারের বিতর্কিত সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং৷ এ বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি৷

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দেশ মিয়ানমারে পোপ

তারপর বাংলাদেশ

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে যাবেন ভ্যাটিকানের প্রধান ফ্রান্সিস৷ এছাড়া বাংলাদেশ সফরে তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবিরে যাবেন বলেও আশা করা হচ্ছে৷

রোমান ক্যাথলিক ধর্মের একটি পবিত্রতম স্থানে রবিবার সন্ধ্যায় মেরি ও জোসেফের নাজারেথ থেকে বেথলেহেম যাত্রার কাহিনী পাঠ করা হয়৷ তারা বেথলেহেম যাচ্ছিলেন রোমান সম্রাট সিজার অগাস্টাসের নির্দেশিত একটি আদমসুমারিতে অংশগ্রহণ করার জন্য৷

‘‘মেরি আর জোসেফের পদচিহ্নে আরো কত মানুষের পদচিহ্ন আঁকা আছে,'' পোপ তাঁর ভাষণে বলেন৷ ‘‘আমাদের কালে আমরা কতশত পরিবারের পদচিহ্ন দেখতে পাই, যারা যাত্রা করতে বাধ্য হয়েছে৷ আমরা লক্ষ লক্ষ মানুষের পদচিহ্ন দেখতে পাই, যারা স্বেচ্ছায় দেশত্যাগ করেননি, বরং স্বদেশ থেকে বিতাড়িত হয়েছেন ও প্রিয়জনদের পিছনে ফেলে গেছেন,'' বলেন পোপ ফ্রান্সিস৷

মানুষপাচারকারীদের নিন্দা

ফ্রান্সিস বিশেষ করে সেই সব মানুষপাচারকারীদের নিন্দা করেন, যাদের তিনি ‘‘আজকের হেরড'' বলে বর্ণনা করেন ও বলেন যে, তারা ‘‘তাদের ক্ষমতা ও সম্পদ বাড়ানোর জন্য নিরপরাধ ব্যক্তিদের রক্তপাত করতেও দ্বিধা বোধ করে না৷'' নিউ টেস্টামেন্টে বর্ণিত কাহিনীতে জুডিয়ার রাজা হেরড বেথলেহেমের কাছে জাত সব পুরুষ সন্তানকে হত্যা করার নির্দেশ দিয়েছিলেন, কেননা যিশু তাঁকে একদিন ক্ষমতাচ্যুত করবেন, বলে হেরডের আশঙ্কা ছিল৷

৮১ বছর বয়সি পোপের পূর্বপুরুষেরা ইটালি থেকে আর্জেন্টিনায় এসেছিলেন৷ পোপ ফ্রান্সিস স্বয়ং অভিবাসীদের প্রতি সমর্থনকে তাঁর নীতির একটি মুখ্য উপাদানে পরিণত করেছেন, যার ফলে প্রায়ই রাজনীতিকদের সঙ্গে তাঁর বিরোধিতার সূত্রপাত ঘটে৷

বড়দিনের মর্ম

বিশ্বের ১২০ কোটি ক্যাথলিকদের নেতা সব ক্যাথলিক ধর্মানুরাগীর প্রতি বড়দিনের সময় উৎসবটির মর্মার্থ সম্পর্কে একবার নিভৃতে চিন্তা করার আহ্বান জানান৷ ‘‘বড়দিনের আগের ঘণ্টাগুলিতে আমি আপনাদের প্রতি যিশুখ্রিষ্টের জন্মের দৃশ্যের সামনে এক মুহূর্ত নীরবে প্রার্থনা করার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি, যাতে আপনারা বড়দিনের বাস্তবিক মর্ম উপলব্ধি করতে পারেন,'' বলেন পোপ৷

রবিবারের দেড় ঘণ্টার প্রার্থনাসভা শুরু হয় ক্যাথলিক ধর্মের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান দিয়ে, যখন পোপ শিশু যিশুর একটি মূর্তির আবরণ মোচন করেন – ক্যাথলিক আচারে যা যিশুর জন্মের প্রতীক বলে গণ্য করা হয়৷ এই সময় সারা বিশ্ব থেকে আগত শিশুরা একটি বেদীর উপর পুষ্পাঞ্জলি দেয়৷

বড়দিনে সারা বিশ্বের চোখ থাকে ভ্যাটিকানের দিকে, কেননা পোপ ফ্রান্সিস দ্বিপ্রহরে অলিন্দ থেকে (নগরী ও বিশ্বের প্রতি) তাঁর প্রথাগত ‘উর্বি এট অর্বি' বার্তা প্রদান করে থাকেন৷

এ মাসের গোড়ার দিকে পোপ একটি পাঁচদিনব্যাপী এশিয়া সফরে মিয়ানমার ও বাংলাদেশ সফর করেন, যেখানে তিনি সচক্ষে মুসলিম রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের দুর্দশা প্রত্যক্ষ করেছেন৷

এসি/ডিজি (এপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

বিশ্ব নেতৃবৃন্দের উপস্থিতি

মঙ্গলবার নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল সহ বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রপ্রধান৷ এছাড়া প্রায় এক হাজার বছর পর সেখানে উপস্থিত ছিলেন অর্থডক্স চার্চের শীর্ষ প্রতিনিধিরাও৷ এজন্য পোপ ফ্রান্সিস তাঁর বক্তৃতায় তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

গরিবের বন্ধু

পোপ তাঁর বক্তব্য সমাজের দরিদ্রতমদের জন্য কাজ করতে দায়িত্বশীলদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন৷ এছাড়া পরিবেশ রক্ষা নিয়েও কথা বলেছেন তিনি৷ পোপ হিসেবে ফ্রান্সিস নামটি তিনি নিয়েছেন সেন্ট ফ্রান্সিস অফ আসিসি নামক ইটালীয় এক ধর্মপ্রচারকের নাম থেকে, যিনি ছিলেন দারিদ্রতার প্রতীক এবং তিনি প্রকৃতি ভালবাসতেন৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

ফিশারম্যান’স রিং

মৎস্যজীবী সেন্ট পিটারের উত্তরসূরি হিসেবে পোপ প্রথম ফ্রান্সিসকে ‘ফিশারম্যান’স রিং’ পরিয়ে দেন ডিন অফ দ্য কলেজ অফ কার্ডিনালস আঙ্গেলো সোডানো৷ প্রত্যেক পোপ তাঁর নিজের পছন্দ অনুযায়ী আংটি পরেন৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

কার্ডিনালদের আনুগত্য

নতুন পোপের প্রতি আনুগত্য দেখান কার্ডিনালদের একটি প্রতিনিধি দল৷ এবার এটা একটা বিশেষ মুহূর্ত ছিল, কেননা আগের পোপ ষোড়শ বেনেডিক্ট এখনো জীবিত আছেন৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

অনুসারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়

প্রার্থনা শুরুর আধঘণ্টা আগে খোলা গাড়িতে করে পোপ সেন্ট পেটার্স চত্বরে জড়ো হওয়ায় অনুসারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

সবাইকে অবাক করা

সেন্ট পেটার্স চত্বরে ঘোরার সময় হঠাৎ করে পোপ ফ্রান্সিস এক শিশুকে চুমু খেতে থেমে যান৷ গত কদিনে এভাবে প্রথা ভেঙে অনেক কাজই করেছেন পোপ যা অনেককে বিস্মিত করেছে৷

নতুন পোপের দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান

দুই লক্ষ অনুসারী

পোপকে সম্মান জানাতে সেন্ট পিটার্স চত্বরে হাজির ছিলেন প্রায় দুই লক্ষ অনুসারী৷ অনেকে পোপের ছবি সম্বলিত ব্যানারও নিয়ে এসেছিল৷

আমাদের অনুসরণ করুন