বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

নামেই পরিচয়

বোয়িং ৭৪৭ জাম্বো জেট নামেই বেশি পরিচিত৷ ৪ ইঞ্জিনের এই বিমান সবচেয়ে সুপরিসরের প্রশস্ত বিমান৷ এভিয়েশন খাতে এই বিমান ‘কুইন অফ দ্য স্কাই’ বা আকাশের রানি নামেও পরিচিত৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

বিমানের বন্ধু

একসঙ্গে বিমান তৈরিতে উদ্যোগ নিয়ে অমর হয়ে গেলেন দুই বন্ধু৷ বোয়িংয়ের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বিল অ্যালেন ও অ্যামেরিকার জনপ্রিয় এয়ারলাইন  ‌প্যান অ্যাম-এর প্রধান জুয়ান ট্রিপ্পে৷ জুয়ান ট্রিপ্পে বিল অ্যালেনকে বলেছিলেন, ‘‘আপনার কোম্পানি একটি বিশাল বিমান বানালে, সেটি কিনে নিতাম৷’’ বন্ধুর কথা রাখতে গিয়েই বিল অ্যালেন এই বিশাল বিমান তৈরির পরিকল্পনা করেন৷ ১৯৬৮ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি এই বিমান প্রথম আকাশ ওড়ে৷

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

আভিজাত্যের প্রতীক

এই বিমান শুধুই কারিগরি কৌশল ও বিশালতার কারণেই প্রশংসিত নয়৷ এই বিমানকে মনে করা হয় আভিজাত্যের প্রতীক৷ এই বিমানে রয়েছে ককটেল লাউঞ্জ৷ ৭০ মিটার লম্বা ও ৬০ মিটার প্রশস্ত এই লাউঞ্জে বসে আড্ডা দিতে দিতে বাড়ি ফেরার সুবিধা আছে৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

দুর্ঘটনা

জাম্বো জেট আর দুর্ঘটনা একে অপরের বন্ধু৷ ১৯৭৪ সালে লুফথানসার একটি বোয়িং ৭৪৭ নাইরোবিতে দুর্ঘটনায় পড়ে৷ এতে ৫৯ জন নিহত হয়৷ ১৯৭৭ সালে স্পেনের টেনেরিফে দুটো জাম্বো মুখোমুখী সংঘর্ষে ৫৮৩ জন নিহত হন৷ ১৯৮৮ সালে স্কটল‌্যান্ডের লকারবিতে বিমানে বোমা বিস্ফোরণ হয়ে ২৭০ যাত্রী নিহত হয়৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

বিমানে কুঁজ

বিমানটির সামনের অংশের উপরিভাগের হাম্প বা কুঁজ একে বিশ্বের সবচেয়ে ভিন্নধর্মী বিমানে পরিণত করেছে৷ এই হাম্প স্টাইলটি আপার ডেক হিসেবেও পরিচিত৷ আলাদা করে এর একটি বো স্টাইলের দরজা রয়েছে, সেখান দিয়ে মালামাল লোড আনলোড করা হয়৷ বোয়িং গাড়িও বহন করেছে মালামাল হিসেবে৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

বিমানের ওপর মহাকাশ যান!

এই বিমানের মহাকাশ যান বহনের অভিজ্ঞতাও আছে৷ ২০১২ সালে নাসার একটি স্পেস শাটল আনা নেওয়া করে বিমানটি৷ জন এফ কেনেডি বিমানবন্দর থেকে ফ্লোরিডার নাসা কেন্দ্রে মহাকাশ যান বয়ে নিয়ে যায় বিশেষভাবে নির্মিত বোয়িং ৭৪৭-১০০এস৷ এটি অবতরণের জন্য নাসায় বিশেষ প্ল্যাটফর্ম করা হয়েছিল৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

রাজাদের প্রিয় বিমান

বোয়িং ৭৪৭ বিশ্বনেতা ও রাজাদের প্রিয়৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্টকে বহনকারী পরবর্তী এয়ারক্রাফটটি যেন বোয়িং ৭৪৭ হয়, সে নির্দেশ দিয়েছেন৷ জাপানের রাজা, ব্রুনেইর সুলতানের বিমানও ৭৪৭৷ এই মডেলে অ্যামেরিকান বিমান বাহিনীরও বেশ কয়েকটি বিমান রয়েছে৷ সেগুলো ‘এয়ারফোর্স ওয়ান’ নামে পরিচিত৷ 

বোয়িং ৭৪৭-এর ৫০ বছর   

দেড় হাজারের বেশি!

পৃথিবীতে বোয়িং ৭৪৭ কয়টি আছে– এমন প্রশ্ন করলে হিসাব করতে ঝামেলা হবে৷ কারণ, এটি বাজারে ছাড়ার পর ধারণা ছিল হয়তো সর্বোচ্চ ৪০০ টি বিমান তৈরির পরেই এটি আর চলবে না৷ কিন্তু ১৯৯৩ সালে এর উৎপাদন সংখ্যা ১০০০ অতিক্রম করার পর সমালোচকদেরও প্রত্যাশা ছাড়িয়ে যায়৷ ২০১৫ সালের মে মাস নাগাদ ১৫০৮ টি বিমান তৈরি করা হয় এবং ৩২ টি ৭৪৭-৮ নির্মাণাধীন রয়েছে৷ 

৫০ বছর আগে যাত্রা শুরু করেছিল জাম্বো জেট বিমান বোয়িং ৭৪৭৷ ৫০ বছরে যাত্রী পরিবহনে সবচেয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই বিমান৷ ছবিতে দেখুন তারই গল্প...

ক্লাউস উলরিশ/এফএ