শরণার্থী স্রোত কমাতে আফ্রিকা যাচ্ছেন ম্যার্কেল

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বৃহস্পতিবার মিশর যাচ্ছেন৷ এরপর তিনি যাবেন টিউনিশিয়ায়৷ উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে শরণার্থীদের প্রবেশ কমাতেই এই সফর বলে জানা গেছে৷

উত্তর আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের অনেক নাগরিক উন্নত জীবনের আশায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে আসার চেষ্টা করেন৷ এতে মাঝেমধ্যেই নৌকাডুবিতে অনেকের প্রাণ যায়৷ এই অভিবাসীদের একটি বড় অংশ লিবিয়া থেকে সমুদ্রে পাড়ি জমান৷ ২০১১ সালে গাদ্দাফির মৃত্যুর পর থেকে লিবিয়ায় কোনো কার্যকর সরকারব্যবস্থা নেই৷ সেই সুযোগে মানবপাচারকারীরা আশেপাশের দেশ থেকে সম্ভাব্য অভিবাসীদের লিবিয়ায় জমায়েত করে সেখান থেকে তাঁদের ইউরোপের উদ্দেশ্যে যাত্রার ব্যবস্থা করে৷ লিবিয়ার সঙ্গে আলজেরিয়া, নাইজার, চাড ও সুদানের সীমান্ত রয়েছে৷ তবে এসব সীমান্তের বেশিরভাগ এলাকা মরুভূমির মধ্যে পড়ায় ঐসব দেশের মানুষরা সহজেই লিবিয়ায় পৌঁছে যান৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

বড়লোকের কাছ থেকে গরীবের কাছে

স্পেনে বসবাসরত সফল ইটালীয় উদ্যোক্তা লিভিও লো মোনাকো তাঁর বিলাসবহুল সেইলিং বোট ‘দ্য অ্যাস্ট্রাল’ শরণার্থীদের উদ্ধার কাজে ব্যবহারে জন্য দান করে দিয়েছেন৷ কিছুটা সংস্কারের পর গত পহেলা জুলাই থেকে ভূমধ্যসাগরে শরণার্থীদের উদ্ধার অভিযানে নিয়োজিত আছে নৌকাটি৷ বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘প্রোঅ্যাক্টিভা ওপেন আর্মস’ এসব উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

নৌকায় উদ্ধারকারীরা

দ্য অ্যাস্ট্রালের ক্রু’রা বিভিন্ন পেশা থেকে এসেছেন৷ কেউ অভিজ্ঞ উদ্ধারকর্মী, কেউ চিকিৎসক আর কেউবা সেইলর৷ এদের অধিকাংশই ছুটির সময় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেন৷ প্রোঅ্যাক্টিভা ওপেন আর্মসের হয়ে শরণার্থীদের সহায়তায় কাজ করেন এই স্বেচ্ছাসেবীরা৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

পুনর্জন্ম

অনেক নারী তাদের কোলের শিশুদের নিয়ে ছোট নৌকায় সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করেন৷ কেউ কেউ আবার উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপ অবধি পৌঁছানোর চেষ্টা করতে গিয়ে লিবিয়ায় মানবপাচারকারীদের খপ্পরে পড়েন এভং ধর্ষণের শিকার হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে যান৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

উদ্ধার এবং ট্রান্সফার

অ্যাস্ট্রাল আকারে ছোট, ত্রিশ মিটার লম্বা - তাই সাগর থেকে শরণার্থীদের উদ্ধারের পর তাদের বড় কোনো জাহাজে তুলে দেয়ার চেষ্টা করেন এটিতে থাকা উদ্ধারকারীরা৷ ছবিতে অ্যাস্ট্রাল থেকে একদল শরণার্থীকে অন্য একটি বড় উদ্ধার জাহাজে তোলার প্রস্তুতি চলছে৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

দেখুন, কিন্তু ধরবেন না

কড়া সামরিক নিয়মনীতির কারণে শরণার্থীদের সামরিক জলযানের উপরে তোলা হয়না৷ অ্যাস্ট্রালের ক্যাপ্টেন রিকার্ডো গাত্তি আক্ষেপ করে জানান, দুর্ভাগ্যজনক হচ্ছে, উদ্ধার অভিযানের দায়িত্ব গুটিকয়েক বসরকারি উন্নয়নসংস্থার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে৷ এই কাজে ইউরোপের সংস্থাগুলোকে পাওয়া যায় না৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

জায়গার অভাব

বড় উদ্ধারযান আশেপাশে না থাকলে কিংবা আবহাওয়া খারাপ থাকলে অনেক সময় শরণার্থীদের নিয়ে বন্দরে ফিরে যায় অ্যাস্ট্রাল৷ কিন্তু তখন শরণার্থীদের নৌকার ভেতরকার স্বল্প জায়গায় কোনোরকমে বসে থেকে সময় পার করতে হয়৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

কিছু থাকবে, বাকিদের চলে যেতে হবে

শরণার্থীদের ইটালির দক্ষিণের একটি পোর্টে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ এখানকার কিছু মানুষ ইউরোপে রাজনৈতিক আশ্রয়ের সুযোগ পাবে, বাকিদের ফেরত পাঠানো হবে নিজেদের দেশে, ফ্রন্টেক্স কর্মকর্তা ডয়চে ভেলেকে একথা জানিয়েছেন৷

বিলাসী নৌকা থেকে শরণার্থী উদ্ধারের জলযান

পনের হাজার মানুষকে সহায়তা

গত জুলাই থেকে এখন অবধি পনের হাজারেরও বেশি মানুষকে সহায়তা করেছে ‘প্রোঅ্যাক্টিভা ওপেন আর্মস’৷ তাদের এই কাজ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে৷

লিবিয়ায় কার্যকর সরকার না থাকায় আঞ্চলিক শক্তি হিসেবে মিশরে যাচ্ছেন ম্যার্কেল৷ বৃহস্পতিবারই তিনি মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল-সিসির সঙ্গে বৈঠক করবেন৷ উত্তর আফ্রিকা থেকে ইউরোপে শরণার্থী ও অভিবাসীদের অবৈধ প্রবেশ কীভাবে ঠেকানো যায়, তা নিয়ে দুই নেতা কথা বলবেন৷ এরপর শুক্রবার ম্যার্কেল যাবেন টিউনিশিয়ায়৷ সেখানেও তিনি একই বিষয় নিয়ে কথা বলবেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বেজি এসেবসির সঙ্গে৷

গত সপ্তাহে ম্যার্কেলের আলজেরিয়া সফরে যাওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু সে দেশের প্রেসিডেন্ট আবদেলআজিজ বুতেফলিকা হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় সফর বাতিল হয়ে যায়৷

উল্লেখ্য, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে জার্মানিতে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে৷ ম্যার্কেল চতুর্থবারের মতো চ্যান্সেলর পদে লড়ছেন৷ কিন্তু ২০১৫ সালে জার্মানিতে কয়েক লক্ষ শরণার্থীকে প্রবেশ করতে দেয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি৷ শরণার্থীদের সংখ্যা কমাতে তাঁর উপর বিভিন্ন দিক থেকে চাপ দেয়া হয়৷ ফলে গতবছর তুরস্কের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ তার ফলে তুরস্ক থেকে শরণার্থীদের ইউরোপে প্রবেশ অনেক কমে এসেছে৷ এবার উত্তর আফ্রিকা থেকে প্রবেশ কমাতে সেখানকার দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করছেন ম্যার্কেল৷ সফরে তাঁর সঙ্গে ব্যবসায়িক নেতারাও থাকবেন৷ মিশর আর টিউনিশিয়ায় বিনিয়োগ নিয়ে কথা বলবেন তাঁরা৷ অভ্যন্তরীণ সমস্যা, জঙ্গি হামলা এসব কারণে দেশ দুটিতে পর্যটকদের গমন কমে গেছে৷ এছাড়া আর্থিক সংকটের মুখেও আছে দেশ দুটি৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ)

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

প্রাণে বাঁচা

২০শে এপ্রিল, ২০১৫: একটি ছোট পালের নৌকা গ্রিসের রোডোস দ্বীপের কাছে চড়ায় আটকালে সীমান্তরক্ষী আর স্থানীয় মানুষেরা বেশ কিছু উদ্বাস্তুকে উদ্ধার করেন৷ তা সত্ত্বেও এই দুর্ঘটনায় তিনজন উদ্বাস্তু জলে ডুবে মারা যান৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

সীমান্তরক্ষীদের ডিঙিতে

১৩ই এপ্রিল, ২০১৫: উদ্বাস্তুরা কোস্ট গার্ডের ইনফ্ল্যাটেবল বোটে চড়ে সিসিলি-র একটি বন্দরে পৌঁছচ্ছে৷ সীমান্তরক্ষীরা লিবিয়ার উপকূলে একটি ডোবা নৌকা দেখতে পেয়ে ১৪৪ জন উদ্বাস্তুকে উদ্ধার করেন – এবং যুগপৎ ন’টি মৃতদেহকে সাগরের জলে ভাসতে দেখেন৷ আবহাওয়া ভালো থাকায় এপ্রিলের শুরু থেকে উদ্বাস্তুরা আরো বেশি সংখ্যায় আফ্রিকা থেকে ভূমধ্যসাগর পার হয়ে ইউরোপে আসার চেষ্টা করছে৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

বাহন

১২ই এপ্রিল, ২০১৫: ওপিয়েলক অফশোর ক্যারিয়ার কোম্পানির ‘জাগুয়ার’ নামধারী মালবাহী জাহাজের অতি কাছে ডুবে যায় একটি উদ্বাস্তু বোট৷ এই কোম্পানির জাহাজগুলি গত ডিসেম্বর মাস যাবৎ দেড় হাজারের বেশি উদ্বাস্তুকে সমুদ্রবক্ষ থেকে উদ্ধার করেছে৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

হাঁটাপথে

২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৫: পশ্চিম আফ্রিকা থেকে আসা উদ্বাস্তুরা ম্যাসিডোনিয়া সীমান্তের দিকে হেঁটে চলেছেন৷ আশা, এইভাবে ‘খিড়কির দরজা’ দিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রবেশ – যদিও সে প্রচেষ্টা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ব্যর্থ হয়৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

ব্রিটেন যাওয়ার শেষ পন্থা

১৭ই ডিসেম্বর, ২০১৪: ফ্রান্সের ক্যালে বন্দর-শহরের কাছের হাইওয়েতে ব্রিটেনগামী লরিতে ওঠার সুযোগের অপেক্ষায় উদ্বাস্তুরা৷ সে আমলে ক্যালে-র পাঁচ-পাঁচটি বেআইনি ক্যাম্পে প্লাস্টিকের ঝুপড়িতে বাস করছিল তিন থেকে পাঁচ হাজার উদ্বাস্তু, শুধুমাত্র ইংল্যান্ড যাবার আশায়৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

‘সেভ আওয়ার সোলস’

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৪: ভূমধ্যসাগরে সাইপ্রাসের কাছে একটি শরণার্থী নৌকা বিপদ সঙ্কেত পাঠানোর পর সাগরে ভাসতে থাকে – ৩০০ উদ্বাস্তু নিয়ে৷

প্রাণের মায়া না করে ইউরোপে আসার প্রচেষ্টা

যারা কোনো বাধা মানে না

১৭ই মে, ২০১৪: আফ্রিকান উদ্বাস্তুরা মরক্কোর উপকূলে স্পেনের এক্সক্লেভ মেলিলা-র চারপাশের উঁচু তারের বেড়া পার হওয়ার চেষ্টা করছে৷ প্রায় ৫০০ মানুষ সীমান্ত পার হবার চেষ্টা করে, তাদের মধ্যে জনা ত্রিশেক সফলও হয়, কিন্তু পরে তাদের আবার মরক্কোয় ফেরৎ পাঠিয়ে দেওয়া হয়৷

আমাদের অনুসরণ করুন