শরীরে ফ্যাটের প্রভাব জিনের উপরেও নির্ভর করে

সুস্বাদু খাবার মানেই তাতে ফ্যাট রয়েছে৷ তার উৎস বাদাম বা অন্য কোনো নিরামিষ খাদ্য হতে পারে, অথবা প্রাণিজ চর্বিও হতে পারে৷ গবেষকরা ফ্যাটের বিপদ, জিনের প্রভাব, সুস্থ ও অসুস্থ মানুষের খাদ্যাভ্যাস নিয়ে নতুন তথ্য সংগ্রহ করছেন৷

ফ্যাট আসলে কতটা খারাপ?

ফ্যাট হৃদযন্ত্রের জন্য ভালো নয় – এমন একটা ধারণা আজও বদ্ধমূল হয়ে রয়েছে৷ কেউ বলেন, ফ্যাটের মধ্যে ইতিবাচক কিছুই নেই৷ অবশ্যই মোটা করে তোলে৷ কেউ কেউ ফ্যাট কথাটা শুনলেই সজাগ হয়ে ওঠেন৷ কারণ তাঁদের মনে হয় বেশি ফ্যাট পুষ্টির জন্য সহায়ক হয় না৷

কিন্তু খারাপ ফ্যাট পুরোপুরি ত্যাগ করা কখনো সম্ভব হয়নি৷ মানবজাতির ইতিহাসে মানুষ কখনো এখনকার মতো মোটা ছিল না৷ গোটা বিশ্বে প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় ভুগছেন৷ কম ফ্যাটের খাবার সহজলভ্য করা ও অনেক প্রচার অভিযান সত্ত্বেও এমনটা ঘটছে৷ কিন্তু এর পেছনে কারণ কী? পুষ্টি বিশেষজ্ঞ ড. মাটিয়াস রিডল বলেন, ‘‘কেউ যদি ফ্যাট ও তেলের পরিমাণ অতিরিক্ত মাত্রায় কমিয়ে দেন, তখন কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা সেই শূন্যস্থান পূরণ করতে এগিয়ে আসে৷ ফলে ওজন ও রক্তে ফ্যাটের মাত্রা বেড়ে যায়৷'' 

পাতলা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

রোগা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

সুইডেনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে করা গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে, কর্মঠ বা সক্রিয়, মোটা মানুষের চেয়ে অলস, পাতলা মানুষই নাকি বেশি দিন বঁচে থাকে৷ গবেষণা বলছে, শারীরিক ফিটনেসের চেয়েও ওজন কম থাকা বেশি জরুরি এবং সে কারণেই তারা নাকি বেশি দিন বাঁচে৷ ৩০ বছর ধরে লাখ মানুষকে নিয়ে করা গবেষণাটি ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ এপিডেমিওলজি-তে প্রকাশিত হয়েছে৷

পাতলা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

ওজন বাড়ার জন্য শুধু চর্বিই দায়ী নয়!

বিখ্যাত দ্য ল্যানসেট পত্রিকার ডায়াবেটিস ও অ্যান্ডোক্রিনলজি বিষয়ক সংখ্যায় প্রকাশিত এক তথ্য থেকে জানা গেছে, ওজন বাড়ানোর জন্য শুধু চর্বি বা ফ্যাটই দায়ী নয়৷ এক বছর ধরে ৬৮ হাজার মানুষের মধ্যে করা সমীক্ষা থেকে বেরিয়ে এসেছে যে, যারা চর্বিজাতীয় খাবার বাদ দিয়েছিলেন তাদের চেয়ে, যারা শর্করা জাতীয় খাবার খাননি, তাদের ওজনই বেশি কমেছে৷ অর্থাৎ ওজন কমাতে চাইলে আগে শর্করা বাদ দিন৷

পাতলা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

সঙ্গীরা সাবধান!

‘পোশাকগুলো তো দেখছি আজকাল গায়ে আরো টাইট হচ্ছে৷’ আপানার প্রিয়া বা প্রিয়তমকে এ ধরণের মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন৷ কারণ যুক্তরাষ্ট্রের মিনিসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদল জানিয়েছেন, সঙ্গীর এ রকম বিরূপ মন্তব্যে ফল হয়েছে উল্টো৷ অর্থাৎ কম খাওয়ার পরিবর্তে তখন আরো বেশি করে খেয়েছেন সঙ্গীরা৷ অথবা খাওয়া নিয়ে নানা ধরণের মানসিক সমস্যা দেখা দিয়েছে তাদের মধ্যে৷

পাতলা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

ওজন কমাতে ভুল পানীয় নয়

ডায়েটিং করতে যেয়ে অনেকেই ‘ডায়েট কোক’-এর মতো মিষ্টি পানীয় পান করেন৷ এ সব মিষ্টি পানীয় নিজের অজান্তেই হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের মতো নানা অসুখের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়৷ এ কথা জানান যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি মিলার স্কুল অফ মেডিসিন-এর গবেষকরা৷ তাই ওজন কমাতে চাইলে সুগার-ফ্রি পানীয় নয়, বরং চিনি ছাড়া গ্রিন-টি এবং সাধারণ পানি পান করুন৷

পাতলা মানুষ বেশি দিন বাঁচে

ওজন কমানোর সহজ উপায়!

খাবারে কী কী উপাদান দিচ্ছেন, কেন দিচ্ছেন, কেমন করে রান্না করছেন এবং কতক্ষণ রান্না করছেন – তার দিকে খেয়াল রাখুন৷ সোজা কথা, খাবার নিজে তৈরি করুন এবং বুঝে-শুনে খান৷ দেখবেন খুব সহজেই ওজন কমে যাবে৷ কারণ ‘ঘরের রান্নাই ওজন কমানোর সহজ উপায়’৷ কোলন ও জুরিখের গবেষকরা একটি সমীক্ষার মাধ্যমে জানিয়েছেন এ তথ্য৷ হেল্থ সাইকোলজি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে গবেষণাটি৷

কিন্তু ফ্যাট কি তার ভাবমূর্তির মতো সত্যি এত খারাপ? সাধারণ মানুষের মনে এ বিষয়ে নানা ধারণা রয়েছে৷ কেউ মনে করেন, নির্ভর করছে, কী ধরনের ফ্যাট৷ যদি ভালো মানের কোল্ড প্রেসড তেল হয়, তাহলে তা ভালো হতে পারে৷ অনেকে সবকিছু অলিভ অয়েল দিয়ে রাঁধেন৷ কেউ বা লিনসিড অয়েল বা বাদাম তেল পছন্দ করেন৷

জিনের প্রভাব

কিছু ধরনের ফ্যাট অবশ্যই আমাদের অসুস্থ করে তোলে৷ কিন্তু সবার ক্ষেত্রেই কি তা প্রযোজ্য?  জার্মানির পুষ্টি গবেষণা কেন্দ্রের প্রোফেসর আন্দ্রেয়াস ফাইফার ৪৬ জো়ড়া যমজ ভাইবোনের উপর সেই পরীক্ষা চালাচ্ছেন৷ কয়েক সপ্তাহ ধরে তাঁদের খাদ্যে ফ্যাটের অনুপাত বাড়িয়ে ৪৫ শতাংশ করা হয়েছে৷  তাতে দেখা গেছে, যে যমজ ভাইবোনদের একই প্রতিক্রিয়া হচ্ছে৷ কিন্তু সব যমজদের ক্ষেত্রে তা ঘটছে না, বরং বিশাল পার্থক্য চোখে পড়ছে৷ কিছু যমজ ভাইবোন ফ্যাটযুক্ত খাবার খেয়ে অন্যদের তুলনায় বেশি মোটা হয়ে যাচ্ছে৷ কোলেস্টরলের মাত্রা সম্ভবত জিনের উপর নির্ভর করে৷ জার্মান পুষ্টি গবেষণা কেন্দ্র প্রোফেসর আন্দ্রেয়াস ফাইফার বলেন, ‘‘কোলেস্টরলের মাত্রা হয় বেশি অথবা কম, জিনের মধ্যেই তা স্থির করা আছে৷ খাদ্যগ্রহণের মাধ্যমে বড়জোর ১৫ শতাংশ বাড়ানো অথবা কমানো সম্ভব৷ কারো কোলেস্টরলের মাত্রা খুব বেশি হলে এমনকি খুব স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়েও তা কমানো সম্ভব নয়৷''

অর্থাৎ খাদ্যগ্রহণের মাধ্যমে কোলেস্টরলের মাত্রায় অতি সামান্য হেরফের সম্ভব৷ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে ড. মেলানি হ্যুমেলগেন তাই রোগীদের পাউঁরুটিতে মাখন লাগিয়ে খাবার অনুমতি দেন৷ কারণ আজকাল কোলেস্টরল কমানোর ওষুধ আগের তুলনায় অনেক বেশি কার্যকর হয়ে উঠেছে৷ তবে তা সত্ত্বেও তিনি রোগীদের সতর্ক থাকতে বলেন৷ কার্ডিওলজিস্ট ড. মেলানি হ্যুমেলগেন বলেন, ‘‘কার্ডিওলজিস্ট হিসেবে মাঝেমাঝে ভাবি, সতর্ক থাকা উচিত৷ কী আর হবে, সকালে ভালো করে সসেজ খেয়ে দুপুরেও মাংস ও কিমার পদ খাওয়া যাক – এমন কথা বললে চলবে না৷ কারণ এ সব খাবার আসলে প্রাণিজাত কোলেস্টরল ও ফ্যাটের  বোমা৷ কিছু মানুষের ক্ষেত্রে এমন খাবার বিশাল পরিবর্তন আনতে পারে৷'' 

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

রসুনের জন্ম

আমাদের দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে রসুনের ব্যবহার বহু বছরের এবং বহুভাবে৷ রান্না থেকে শুরু করে গায়ে মালিশ করা পর্যন্ত৷ আর রসুনের আদিনিবাস তো দক্ষিণ এশিয়াতেই! তবে জার্মানিতে রসুনের ব্যবহার বেশিদিন আগের কথা না হলেও এরই মধ্যে রসুন বেশ পরিচিত হয়ে উঠেছে জার্মানদের কাছে তার নানা গুণের কারণে৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

রসুনের নানা রূপ

শুধু রান্নায় নয়, মজার মজার সালাদেও রসুন ব্যবহার করা হয়৷ জার্মানিতে রয়েছে রসুন দেয়া পাউরুটি, মাখন, আচার, রসুনের জুস এবং রসুনের ট্যাবলেট আর ক্যাপসুল তো রয়েছেই৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

খোলা বাজারে রসুন

রসুন আজকাল জার্মানির প্রায় অনেক দোকানেই পাওয়া যায়৷ তবে খোলা বাজারেই তাজা রসুন বেশি পাওয়া যায়৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

বিদেশ থেকে আসে

জার্মানিতে যেহেতু রসুনের চাষ হয়না, তাই বিদেশ থেকেই আনা হয় রসুন জার্মানিতে৷ অনেক জার্মানদের সুন্দর রান্নাঘরে অনেকগুলো রসুন একসাথে করে বেশ আকর্ষণীয়ভাবে ঝুলিয়ে রাখা হয়৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

কোলেস্টোরেল কমাতে রসুনের জুড়ি নেই

রসুন নানা অসুখে ভেষজ ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়৷ রসুন কোলেস্টোরেল কমাতে সাহায্য করে, শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, উচ্চরক্তচাপ কমায়৷ রসুন ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে৷ এসব কারণে জার্মানিতে রসুনকে ১৯৮৯ সালে বছরের ‘সেরা ভেষজ উদ্ভিদ’ হিসেবে নির্বাচন করা হয়৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

রসুনের বিজ্ঞাপন

পেটের নানা পীড়া বা অন্যান্য কারণেও আজকাল অনেক জার্মানকেই রসুন ঘরে রাখতে দেখা যায়৷ এখানকার কিছু ফার্মেসিতে কাচের বোতলে রসুনের জুস পাওয়া যায়৷ বলা বাহুল্য সে সব বেশ ব্যয়সাপেক্ষ৷ আর হ্যাঁ, আজকাল জার্মান টিভি চ্যানেলের রান্নার অনুষ্ঠান বা অন্য অনুষ্ঠানেও রসুনের উপকারিতা নিয়ে নানা বক্তব্য থাকে৷

জার্মানদের রান্নাঘরেও রসুনের ব্যবহার

রসুনের পাউরুটি

রসুন দেয়া পাউরুটি খেতে অত্যন্ত সুস্বাদু৷ লম্বা আকারের চিকন পাউরুটির ভেতরে দেয়া হয় রসুন লাগানো মাখন৷ সেটা ওভেনে গরম করে খেতে খুবই মজা৷ এই রুটি জার্মানদের কাছে বেশ প্রিয় খাবার বিশেষ করে ছুটির দিনে৷

স্যাচুরেটেড ফ্যাট সম্পর্কে সাবধান!

কোলেস্টরলের মাত্রা ১৫ শতাংশ কম হলে তা হার্ট অ্যাটাকের রোগীদের জন্য অবশ্যই ইতিবাচক৷ প্রাণিজাত ফ্যাট সম্পর্কে তাদের সতর্ক থাকা উচিত৷ ঝুঁকিপূর্ণ রোগী থেকে শুরু করে সুস্থ মানুষ – সবার ক্ষেত্রেই স্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিডের অনেক নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে৷ প্রোফেসর ফাইফার বলেন, ‘‘প্রদাহ থেকে শুরু করে শরীরের যে সব প্রক্রিয়া ডায়াবিটিস, আর্টারিওস্কেলেরোসিস ও স্মৃতিভ্রংশের বিকাশের জন্য দায়ী, সেগুলির উপর এর প্রভাব রয়েছে৷ এ নিয়ে কোনো সংশয় নেই৷ আমাদের গবেষণায়ও তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে৷ সে কারণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট মোটেই ভালো নয়৷''

পেট্রা শুখার্ড ও হাইকে বাউয়ার ফ্যাটযুক্ত খাবার খাওয়ার সময়ে অনেক সতর্ক হয়ে উঠেছেন৷ সুস্থ মানুষ হিসেবে অবশ্য তাঁদের কম ফ্যাট নিয়ে কোনো কড়া নিয়ম মানার প্রয়োজন নেই৷ কারণ আজ আমরা জানি, ভাবমূর্তি খারাপ হলেও ফ্যাট মোটেই তত ক্ষতিকারক নয়৷

বির্গিট আউগুস্টিন/এসবি

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

ভালো বন্ধু চাই

সুস্থ জীবনের জন্য সামাজিক বন্ধন, অর্থাৎ ভালো বন্ধু থাকা ঠিক স্বাস্থ্যকর খাবার আর হাঁটাচলার মতোই জরুরি৷ তথ্যটি প্রকাশ করেছে প্রসিডিং অফ দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্স৷ ১৫ হাজার মানুষ নিয়ে করা এক সমীক্ষা থেকে জানা যায়, ভালো বন্ধুর অভাবে বা মনের কথা আদান-প্রদান না করার কারণে তরুণদের মধ্য বিভিন্ন ধরনের ইনফেকশন দেখা দেয়৷ আর বয়স্কদের ক্ষেত্রে দেখা দেয় ব্লাডপ্রেশারের সমস্যা৷

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

দিবাস্বপ্ন জ্ঞান-বুদ্ধি বাড়ায়

অনেকেই সচেতনভাবে তাঁদের চিন্তাকে মুক্তভাবে প্রকাশ করে৷ বলা যায়, দিনে স্বপ্ন দেখা হচ্ছে চিন্তাভাবনাগুলোকে আগে থেকে গুছিয়ে রাখা বা সাম্প্রতিক কোনো সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা৷ আরো পরিস্কার করে বলা যায়, স্টেজ রিহার্সেল করা৷ ইংল্যান্ডের ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় এবং জার্মানির মাক্স প্লাঙ্ক ইন্সটিটিউটের করা সমীক্ষা থেকে তথ্যটি জানা যায়৷

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

ডাক্তারের মতামতকে গুরুত্ব দিন

যে মানুষ তাঁর ডাক্তারকে বিশ্বাস করে এবং তাঁর পরামর্শকে গুরুত্ব দেয়, সে দীর্ঘজীবন লাভ করে৷ বিভিন্ন দেশের মানুষকে নিয়ে করা একটি সমীক্ষা থেকে তথ্যটি বেরিয়েছে আর তা প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল৷

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

কর্মস্থল থেকে বাসার দূরত্ব কমিয়ে আনুন

কর্মস্থল থেকে যাঁর বাসা যত বেশি দূরত্বে তাঁর মানসিকভাবে অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কাও তত বেশি৷ আর সে কারণে কর্মস্থলেও তাঁরা অনুপস্থিত থাকেন বেশি৷ এ তথ্য জানা যায় জার্মানির স্বাস্থ্যবীমা কোম্পানী এওকে-র বাৎরিক রিপোর্ট থেকে৷ তাদের শতকরা ৫০ ভাগ কর্মীই ৫০ কিলোমিটারের চেয়ে বেশি দূরে থাকেন৷

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

অন্যকে সুখী করার মধ্য দিয়ে নিজে সুখী

যেসব মানুষের মধ্যে অন্যকে নানাভাবে সাহায্য করার এক ধরনের ইচ্ছা কাজ করে এবং যতটা সম্ভব করে থাকেন, তাঁরা আসলে মানসিকভাবে সুখী৷ তাছাড়া নিজের ভুল স্বীকার করা, অন্যকে ক্ষমা করার মধ্য দিয়েও নিজেকে শান্তিতে রাখা যায়৷