শ্রেণিকক্ষে বহুসংস্কৃতি – সমস্যা না সম্ভাবনা?

জার্মানির স্কুলগুলিতে নানা দেশ, সংস্কৃতি, ও ধর্মের ছেলে-মেয়েরা একসাথে ক্লাস করে৷ শিক্ষকদের এক্ষেত্রে আরো ভালোভাবে প্রস্তুত করার জন্য হিল্ডেসহাইম বিশ্ববিদ্যালয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে৷

‘‘এরা তো সবাই বাচ্চা৷ আমি তাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য করি না৷'' বলেন শিক্ষক প্রশিক্ষণ বিভাগের ২৪ বছর বয়সি ছাত্রী ইয়ানিনা৷ জার্মান ও ধর্ম তাঁর মূল বিষয়৷ ইয়ানিনার কাছে এটা খুবই স্বাভাবিক, যে তাঁর প্রাকটিক্যাল ক্লাসে নানা সংস্কৃতির ছেলে-মেয়ে পড়াশোনা করে৷ নিজের স্কুল জীবনেও নানা দেশ থেকে আসা সহপাঠীদের সঙ্গে ক্লাস করেছেন ইয়ানিনা৷

জার্মানি ইউরোপ | 21.12.2013

আন্তঃসাংস্কৃতিক শিক্ষা গুরুত্ব পাচ্ছে

জার্মানির বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতেও আন্তঃসাংস্কৃতিক শিক্ষা এখন গুরুত্ব পাচ্ছে৷ কেননা পাঁচ বছরের নীচে প্রতি তিনজনের একজন বাচ্চা অভিবাসী পরিবারের৷ আর এইসব দিকে লক্ষ্য রেখে হিল্ডেসহাইম বিশ্ববিদ্যালয় সম্প্রতি ‘সেন্টার ফর এডুকেশনাল ইন্টিগ্রেশন' নামের একটি কেন্দ্র খুলেছে৷ এই উপলক্ষ্যে শিক্ষক প্রশিক্ষণে আন্তঃসাংস্কৃতিক শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা করার জন্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ৩০০ বিশেষজ্ঞ মিলিত হন৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

বিশেষভাবে তৈরি করা

ট্রেনিং বা প্রশিক্ষণ যে বিষয়েই নিন না কেন, মনে রাখতে হবে তা যেন যুগের প্রযুক্তির সাথে সম্পর্কিত হয়৷ এমন কিছু হয়, যে পেশার চাহিদা আছে সমাজে৷ এবং যে পেশায় নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করারও সুযোগ থাকে৷ সেভাবেই কিছুটা বুঝে-শুনে এবং সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে নিজের পছন্দের পেশাকে বেছে নেওয়া প্রয়োজন৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

ঘড়ি তৈরি

ঐতিহ্যগতভাবে ঘড়ি তৈরি বা ঘড়ি মেরামতের কাজও আজকের যুগে প্রযুক্তির সাহায্য ছাড়া সম্ভব নয়৷ আর এই কাজটি অত্যন্ত নিপুণভাবে করতে হয়৷ ছবিতে মেয়েটিকে ঘড়ি তৈরির কাজে প্রশিক্ষণ নিতে দেখা যাচ্ছে৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

বাড়ির ছাদে টালি বসানো

জার্মানিতে যে কোনো বাড়ির শুধু ছাদে টালি বসানো নয়, ছাদের যে কোনো কাজ করার জন্য রয়েছে আলাদা মানুষ, আলাদা মিস্ত্রি৷ এবং তাঁরা শুধু এই কাজটিই করে থাকেন৷ এই কাজের জন্য বিশেষভাবে প্রশিক্ষণও নিতে হয়৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

নাপিত

অনেক রকম পেশা আছে যেগুলো আগে শুধু পুরুষরাই করতো৷ আস্তে আস্তে এ অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে৷ তবে কিছু কিছু চাকরি আজও আছে যেগুলো নারীরাই বেশি করেন৷ নাপিতের চাকরিটিও সেরকমই একটি, যা মেয়েরাই বহুদিন থেকে করে আসছেন৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

ধাত্রী

বাচ্চা প্রসব করানোটাও এমন একটি চাকরি যা মেয়েদের জন্যই বরাদ্দ করা রয়েছে৷ জার্মানিতে এ কাজের জন্য তিন বছর প্রশিক্ষণ নিতে হয় এবং প্রশিক্ষণ শেষে তিনি হাসপাতালে চাকরি পান৷ অবশ্য কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে ধাত্রীর কাজ করতে চান, সেটাও সম্ভব৷ এখানে কয়েকজন ধাত্রীবিদ্যার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন৷ ট্রেনিং-এর সময় শিশুর পরিবর্তে পুতুল দিয়ে প্রসবকালীন নিয়মগুলো শেখানো হয়৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

কাঠমিস্ত্রি

জার্মানিতে অনেকেই কাঠমিস্ত্রির প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকেন, কারণ একাজে বেশ ভালো আয় করা সম্ভব৷ শুধু কাঠমিস্ত্রি নয়, জার্মানিতে যে কোনো কাজের মিস্ত্রির ক্ষেত্রেই একথা প্রযোজ্য৷ চাকরি পেতেও মিস্ত্রিদের তেমন বেগ পেতে হয় না জার্মানিতে৷ বিভিন্ন ছোট-বড় ফার্নিচারের দোকানে সব সময়ই কিছু কাঠমিস্ত্রি থাকেন৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

কসাই বা ‘মিট কাটার’

মাংস কাটার জন্যও জার্মানিতে বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে৷ প্রায় সব ধরণের হাতের কাজের জন্যই জার্মানিতে রয়েছে প্রশিক্ষণের স্কুল৷ ছবিতে একজন কসাইয়ের কাছে ছাত্ররা মাংস কাটার প্রশিক্ষণ নিচ্ছে৷

জার্মানিতে পেশাগত প্রশিক্ষণ

প্রশিক্ষণ স্কুল

এই স্কুলে বিভিন্ন পেশার জন্য নানা রকম তত্ত্বগত শিক্ষা দেওয়া হয় এবং পাশাপাশি বিভিন্ন স্কুলে পাঠানো হয় ‘প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস’-এর জন্য৷ সাধারণত এসব প্রশিক্ষণ দুই থেকে চার বছরের মধ্যে হয়ে থাকে৷ কোনো ধরণের প্রশিক্ষণ ছাড়া জার্মানিতে তেমন কোনো চাকরি পাওয়া সম্ভব নয়৷ কারোর একটি প্রশিক্ষণ থাকলে, তাঁর জন্য চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যায়৷

বেশ কয়েক বছর ধরে হিল্ডেসহাইম বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়টির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে৷ ব্যবস্থা করেছে বহুভাষাবিদ্যা ও আন্তঃসাংস্কৃতিক শিক্ষার ওপর সেমিনার ও লেকচারের৷ ‘ল্যার্নকুল্ট' নামের একটি প্রকল্পে নানা ভাষাভাষী ও সংস্কৃতির ছেলে-মেয়েরা একটি টিমে পড়াশোনা করে৷ হবু শিক্ষকরা বিদেশি বংশোদ্ভূত ছেলে-মেয়েদের ‘হোমটাস্ক'-এ সাহায্য করেন৷

অভিবাসনের প্রেক্ষাপট নিয়ে চিন্তাভাবনা

ভবিষ্যতে গণিত, শিল্প বা কোনো ভাষা নিয়ে পড়াশোনা করলেও শিক্ষক প্রশিক্ষণের ছাত্রছাত্রীদের ‘বহুভাষাবিদ্যা ও জার্মান' বিষয়টি নিয়ে মাথা ঘামাতে হবে৷ ‘‘অভিবাসনের প্রেক্ষাপট নিয়ে চিন্তাভাবনা করাটাও গুরুত্বপূর্ণ৷'' বলেন শিক্ষাবিজ্ঞানের প্রফেসর মেলানি ফাবেল-লামলা৷এইভাবে বিভিন্ন সংস্কৃতি ও ধর্মীয় মূল্যবোধের মধ্যে সংঘর্ষ এড়ানো সম্ভব৷

জার্মানিতে আন্তঃসংস্কৃতির বিষয়টিকে ইদানীং গুরুত্ব দেওয়া হলেও সনাতন অভিবাসীর দেশ ক্যানাডায় বিষয়টি দৈনন্দিন জীবনের অংশ৷ ‘‘সেখানে বড় বড় শহরে এমন স্কুলও রয়েছে, যেখানে ৭০টি পর্যন্ত ভাষাভাষীর ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা করে৷ টোরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভিড মন্টেমারো৷ তাই শিক্ষক প্রশিক্ষণেও আন্তঃসংস্কৃতি বিষয়টি আবশ্যকীয়৷

শিক্ষক প্রশিক্ষণ বিভাগে ভর্তি হতে হলে শিক্ষার্থীদের আবেদনপত্রে জানাতে হয়, কীভাবে তাঁরা ক্লাসরুমের এই বৈচিত্র্যের মোকাবেলা করবেন৷ তবে ক্যানাডায় শুধু স্কুলে নয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের সেমিনার কক্ষেও রয়েছে এই ধরনের বৈচিত্র্য৷ শিক্ষক প্রশিক্ষণ বিভাগের শিক্ষার্থীদের ৩০ থেকে ৪০ শতাংশই অভিবাসীর সন্তান৷ এঁদের মধ্যে অনেকেই পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করেন৷

নরওয়েতেও শ্রেণিকক্ষের বৈচিত্র্যকে মোকাবেলা করার চেষ্টা করা হচ্ছে (ফাইল ফটো)

নরওয়ের শ্রেণিকক্ষ

নরওয়েতেও শ্রেণিকক্ষের বৈচিত্র্যকে মোকাবেলা করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ শুধু সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য নয়, সামাজিক শ্রেণি, মেধা এ সব বিষয়ও বিবেচনায় আনা হয়, বলেন বুস্কেরুড অ্যান্ড ভেস্টফোল্ড ইউনিভার্সিটি কলেজের হাইডি বিসেথ৷

তাঁর কথায়, ‘‘এই বিভিন্নতাকে একান্তই স্বাভাবিক ব্যাপার হিসাবে দেখতে হবু শিক্ষকদের প্রস্তুত করা হয়৷ নিজের ও অপর সংস্কৃতি সম্পর্কে সংবেদনশীল হওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ৷ তাঁদের শিখতে হবে ভিন্ন ভাষায় কথা বলে যে সব বাচ্চা, তাদের সঙ্গে সঠিক আচরণ করা৷''

রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডাতে অস্তিত্ব নেই

তুরস্কে বিষয়টি সম্পূর্ণ ভিন্ন৷ সেখানে কুর্দি ও আলেভি সম্প্রদায়ের সংখ্যালঘুর সংখ্যা কম নয়৷ কিন্তু রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডাতে বিষয়টির কোনো অস্তিত্ব নেই৷ তাই তুর্কি শিক্ষকরা বুঝে উঠতে পারেন না, কুর্দি বা আলেভি গোষ্ঠীর ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে কীরকম আচরণ করবেন৷

আমাদের অনুসরণ করুন