আফগানিস্তান

কাবুলে গাড়ি বোমা হামলা, দায় স্বীকার তালিবানের

সোমবার কাবুলে এক আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে তালিবান৷ গোয়েন্দা সংস্থার কর্মীরা হামলার লক্ষ্য ছিল বলে তারা দাবি করছে৷ আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট এই হামলার নিন্দা করে বিবৃতি দিয়েছেন৷

Afghanistan Kabul Autobombe (Reuters/TV)

সোমবার সকালে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে এক আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলায় কমপক্ষে ৩৫ জন নিহত ও প্রায় অর্ধশত আহত হয়েছে৷ বিস্ফোরণের তীব্রতার কারণে তিনটি গাড়ি ও ১৫টি দোকান ধ্বংস হয়ে গেছে৷ তার মধ্যে যাত্রীবোঝাই একটি মিনিবাসও ছিল৷ একটি সূত্র অনুযায়ী আততায়ী বিস্ফোরক বোঝাই গাড়িটি নিয়ে সেই বাসে ধাক্কা মারে৷ হতাহতদের মধ্যে অনেক সরকারি কর্মী ছিলেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, একটি বাসে খনি মন্ত্রণালয়ের কিছু কর্মী নিহত হয়েছেন৷ তিনি এই হামলাকে ‘মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ' হিসেবে বর্ণনা করেন৷

সংবাদ সংস্থা ডিপিএ-র সূত্র অনুযায়ী তালিবান এই হামলার দায় স্বীকার করেছে৷ তালিবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ টেলিগ্রাম অ্যাপের মাধ্যমে এই দাবি করেছেন৷ তিনি আরো জানান, আফগানিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা এনডিএস-এর দু'টি এই হামলার লক্ষ্য ছিল৷ হামলায় এই সংস্থার ৩৭ জন নিহত হয়েছে বলেও মুজাহিদ দাবি করেছেন৷

প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি এক বিবৃতিতে বলেন, এই সন্ত্রাসবাদীরা আবার নিরীহ মানুষের উপর হামলা ও সরকারি কর্মীদের লক্ষ্যবস্তু করছে৷

আফগানিস্তানের ‘ডেপুটি চিফ এক্সিকিউটিভ' মহম্মদ মোহাকিকের বাসভাবনের কাছে এক চেকপয়েন্টের সামনে এই হামলা ঘটে৷ তবে তিনি অক্ষত রয়েছেন৷ আরও বেশ কয়েকজন রাজনীতিকের বাসভবন এই এলাকায় অবস্থিত৷ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাস্থলের বেশ কিছু ছবি প্রকাশিত হয়েছে৷ কাবুলের পশ্চিমে এই এলাকায় সংখ্যালঘু শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের অনেক মানুষ বসবাস করে৷

গত বছর ঠিক এই দিনেই তথাকথিত ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর এক হামলায় ৮০ জনেরও বেশি নিহত ও ২৩০ জন আহত হয়েছিল৷ চলতি বছর কাবুল শহরে এই নিয়ে ১০টি বড় আকারের হামলা ঘটলো৷ জাতিসংঘের সূত্র অনুযায়ী চলতি বছরের প্রথমার্ধে গোটা দেশে কমপক্ষে ১,৬৬২ জন নিরীহ মানুষ নিহত হয়েছে৷ এর মধ্যে প্রায় ২০ শতাংশই কাবুল শহরে হামলার শিকার হয়েছেন৷ দেশের প্রায় অর্ধেক প্রদেশেই হিংসার মাত্রা বেড়ে গেছে বলে আফগানিস্তানে জাতিসংঘের সহায়তা মিশন ইউএনএএমএ জানিয়েছে৷

এসবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স, এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

Albanian Shqip

Amharic አማርኛ

Arabic العربية

Bengali বাংলা

Bosnian B/H/S

Bulgarian Български

Chinese (Simplified) 简

Chinese (Traditional) 繁

Croatian Hrvatski

Dari دری

English English

French Français

German Deutsch

Greek Ελληνικά

Hausa Hausa

Hindi हिन्दी

Indonesian Bahasa Indonesia

Kiswahili Kiswahili

Macedonian Македонски

Pashto پښتو

Persian فارسی

Polish Polski

Portuguese Português para África

Portuguese Português do Brasil

Romanian Română

Russian Русский

Serbian Српски/Srpski

Spanish Español

Turkish Türkçe

Ukrainian Українська

Urdu اردو